নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইনে অর্থ লেনদেনের পরিমান বেড়েছে। আগে, যেখানে UPI (Unified Payments Interface) Payment বড় বড় দোকানে সীমাবদ্ধ ছিল, এখন এটি ছোট ছোট দোকান এমনকি চায়ের দোকানেও পৌঁছেছে। UPI, Paytm, net banking এই সমস্ত তাত্ক্ষণিক রিয়েল-টাইম পেমেন্ট সিস্টেম ব্যাঙ্কিং লেনদেনের ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষের সময় এবং বোঝা অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছে।

এখন কারোর অ্যাকাউন্টে অর্থ স্থানান্তর করতে আমাদের কোনও ব্যাঙ্ক ঘুরে দেখার দরকার নেই কারণ এটি স্মার্টফোন বা ল্যাপটপের মাধ্যমে কয়েক সেকেন্ডের ব্যবধানে করা যেতে পারে।তবে সবকিছুর দুটি দিক রয়েছে। অনলাইন লেনদেনের ফলে ব্যাঙ্কিং সুবিধা সহজতর হয়েছে, আবার অনেকে মতামত দিয়েছেন যে, প্রযুক্তির উপর বেশি নির্ভরতার কারণে জীবন আরও জটিল হয়ে উঠেছে।

আজকের সময়ে, বিপুল সংখ্যক লোক ডিজিটাল মাধ্যমের মাধ্যমে অর্থ লেনদেন করছে। তবে ডিজিটাল পেমেন্ট করার সময় এই জিনিসগুলো সবসময় মাথায় রাখা উচিত।

কার্ডের ডিটেলস সংরক্ষণ বিষয়টি এড়িয়ে যান

এটি খুব সাধারণ বিষয়, তবে আমাদের অবশ্যই সাবধান হওয়া উচিত। ডিজিটাল অর্থ প্রদানের সময়, যখনই আমরা আমাদের কার্ড দিয়ে কিছু কিনে থাকি, তখন আমাদের মনে রাখা উচিত যে কোনও কিছু সংরক্ষণ করা হচ্ছে না তো !এছাড়াও কার্ডের ডিটেলস ফোনে সংরক্ষণ করা উচিত নয়। কারণ ফোন চুরি হয়ে গেলে তা বিপদজনক হতে পারে।

পাবলিক Wi-Fi থেকে দূরে থাকাই ভালো

যখনই আমরা আর্থিক লেনদেন করছি, তখন আমাদের পাবলিক ওয়াই-ফাই ব্যবহার এড়িয়ে চলা উচিত। কারণ এই সমস্ত Wi-Fi -এর মাধ্যমে সাইবার আক্রমণের ঝুঁকি বাড়ে। এক্ষেত্রে আমাদের কেবল বিশ্বস্ত ওয়েবসাইটগুলি ব্যবহার করা উচিত।

প্রতারণামূলক অ্যাপগুলি এড়িয়ে চলুন

প্লে স্টোরে প্রচুর সংখ্যক অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে জালিয়াতি করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে কোনও অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় এটি ভেরিফায়েড হয়েছে কিনা তা যাচাই করে নিন। আপনি যখনই কোনও অ্যাপ্লিকেশনকে অনুমতি দেবেন, তারপরে যাচাই করে নিন যে জিনিসগুলি সে অ্যাক্সেস চাইছে তা আদৌ তার কাজের কিনা।

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট বা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করুন

অনলাইন লেনদেন করার সময় সর্বদা অফিসিয়াল ওয়েবসাইট বা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করুন।এখানে প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা কম। যদি কোনও ওয়েবসাইট https: // থেকে শুরু হয় তবে এটিকে নিরাপদ হিসাবে বিবেচনা করা হয়।এমন ওয়েবসাইট থেকেই লেনদেন করুন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.