মুম্বই : ছবির নাম কেদারনাথ৷ ধর্মস্থানের গল্প৷ এক পর্যটক আর এক গাইডের গল্প৷ তাদের প্রেমকাহিনী৷ কিন্তু শুধুই কি তাই? শোনা যাচ্ছে, গল্পের মোড়কটা এইরকম হলেও ভিতরে আছে টুইস্ট৷ কেদারনাথ এক হিন্দু মেয়ে আর এক মুসলিম ছেলের প্রেমকাহিনী৷

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে কেদারনাথ ছবির পোস্টার৷ পোস্টারে সুশান্ত সিং রাজপুত ও সারা আলি খানকে কিছুটা ঘনিষ্ঠ অবস্থায় দেখা গেছে৷ আর তা হবে নাই বা কেন? ছবির গল্পটাই তো প্রেমের৷ এক মুসলিম ছেলে, পেশায় সে মালবাহক কাম গাইড; সে প্রেমে পড়েছে এক হিন্দু পর্যটকের৷

ছবিটির পোস্টারে শিব, ত্রিশুল ও পাহাড়ের ছবির সঙ্গে একজন পুরুষ ও নারীর চুম্বনের দৃশ্য বলে দিচ্ছে যে এই চলচ্চিত্রের মূল কাহিনীর মোড়কে মিষ্টি প্রেমের গল্প আছে। ২০১ সালে হড়কা বানের কবলে পড়ে অসংখ্য তীর্থযাত্রীর মৃত্যু হয়েছিল। এই গল্পের ঘটনা সেই সত্যকাহিনীর উপর নির্ভর করে হতে পারে৷ তবে ঝেড়ে কাশেননি পরিচালক৷ প্রাকৃতিক দুর্যোগের ঘটনাকে কেন্দ্র করে যদি হিন্দু-মুসলিম প্রেমের গল্প হয়, তবে তা দেশের বর্তমান রাজনীতি ও সমাজ পরিস্থিতিকে যে বার্তা দিতে চলেছে সেটাই দেখার।
ছবির পোস্টার প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা সাড়া ফেলেছে বিভিন্ন মহল। পোস্টার প্রকাশ করে ট্যুইটারে পরিচালক আভিষেক কাপুর বলেছেন, “শুটিং শুরুর আগের রাতটা সবসময়ই দীর্ঘ হয়৷ লক্ষ্য পর্যন্ত পৌঁছনোর আগে এটাই প্রথম লুক ও শেষ অবশেসন।”

পোস্টারের বার্তা ও পরিচালকের কথা বলে দিচ্ছে, তীর্থযাত্রার প্রেক্ষাপটে এই চলচ্চিত্র হতে চলেছে দুই ধর্মের মেলবন্ধন গড়ে তোলার একটা প্রয়াস। তথাপি ভারতের প্রকৃতিক সৌন্দর্য্য, সাংস্কৃতিক ও আধ্যাত্মিক বৈশিষ্টকে তুলে ধরার আদর্শ প্রেক্ষাপট হতে চলেছে এই ছবিটি। এখন দেখার বিষয় দেশ কীভাবে গ্রহণ করে রিল লাইফের হিন্দু মেয়ে আর মুসলিম ছেলের প্রেমের গল্প।