নয়াদিল্লি: সারা দেশ যখন করোনা মোকাবিলায় লড়াই করছে, তখন সীমান্তে লড়াই জারি আছে। গত তিন দিন ধরে পাক সীমান্তে চলছে কার্যত লড়াই। রবিবার জঙ্গি দমনে গিয়ে শহিদ হয়েছেন তিন জওয়ান। পাঁচ জওয়ানকে খতম করা সম্ভব হয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মীরের কেরান সেক্টরে কুপওয়াড়ায় এই জঙ্গিদমন আভিযান চালিয়েছে ভারতীয় সেনা। গত ৩ এপ্রিল থেকে এই অভিযান চলছে। এখনও জারি আছে সেই অভিযান।

গত ২৪ ঘণ্টায় অন্তত ৯ জঙ্গিকে খতম করেছে সেনা। এর মধ্যে চারজন হিজবুল মুজাহিদীনের সদস্য বলে জানা গিয়েছে, যাদের শনিবারই মেরেছে ভারতীয় সেনা। দক্ষিণ কাশ্মীরের বাতপুরায় সেই অভিযান চলে। শনিবার প্রায় সারাদিন ধরে চলে এনকাউন্টার।

কুলগামে সিআরপিএফ ও এসওজি একটি জয়েন্ট অপারেশন চালায়। হিজবুল জঙ্গিদের কাছ থেকে প্রচুর অস্ত্রও উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

কুলগামে যেসব জঙ্গিদের মারা হয়েছে, তাদের নাম আইজাজ আহমেদ নাইকো ওরফে মুসা, শাহিদ আহমেদ মালিক, ওয়াকার ফারুক ও আশরফ মালিক।

জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন বিশেষ সুত্র মারফত খবর পেয়েই এই অভিযান চালানো হয়েছিল। তবে বেশ কিছু জঙ্গি এখনও ওই অঞ্চলে আত্মগোপন করে রয়েছে। এই পরিস্থিতির মধ্যেই মাঝে মাঝেই কানে আসছে গুলির শব্দ। তাই এই অভিযান এখনও চলবে বলেই মনে করা হচ্ছে। এর আগে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের তরফ থেকে তাদের সোশ্যাল মিডিয়াতে জানানো হয়েছিল সন্ত্রাসবাদীদের আটক হওয়ার খবর। কিন্তু তারপরে সামনে আসে চার জঙ্গির নিকেশ হওয়ার বিষয়টি।