শ্রীনগরঃ রবিবার সকালেই বড়সড় সাফল্য বিএসএফের। একদল পাকিস্তানির ভারতে অনুপ্রবেশের ছক বানচাল করল বর্ডার সিকিওরিটি ফোর্স। জম্মু কাশ্মীরের কুপওয়াড়া জেলার নওগাম সেক্টরে এই অনুপ্রবেশের চেষ্টা ভেস্তে দেওয়া হয়েছে।

বিএসএফ সূত্রে খবর, রবিবার ভোরে একদল পাকিস্তানি ভারতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছিল। টহলরত বিএসএফ তাদের দেখতে পেয়েই গুলি চালাতে শুরু করে। পরে ওই দল পাক অধিকৃত কাশ্মীরের দিকে পালিয়ে যায়। সীমান্ত বরাবর বারবারই অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে পাকিস্তান। জম্মু কাশ্মীরের পুঞ্চে ফের ভারতীয় সেনার সাফল্য। পুঞ্চে উদ্ধার হয় জঙ্গিদের গোপন ঘাঁটি। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ভারতীয় সেনা ও জম্মু কাশ্মীর পুলিশ একটি যৌথ তল্লাসি অভিযান শুরু করে।

রবিবার পাকিস্তানি সেনারা নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে মেন্ধার এবং বালাকোট সেক্টরে আক্রমণ চালায়। এই ঘটনায় চারজন নাগরিক, এদের মধ্যে তিনজন মহিলা গুরুতরভাবে আহত হন। শনিবার সকালের দিকে শাহপুর এবং কিরণি সেক্টরেই গুলিবর্ষণ করে।

বিদেশমন্ত্রক জানাচ্ছে, চলতি বছরে দু’হাজারেরও বেশি বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। নিশানা করেছে সাধারণ মানুষকে। অথচ ভারতের বিরুদ্ধেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের কালি ছেটাচ্ছে পাকিস্তান। প্রায় একুশ জন সাধারণের মৃত্যু হয়েছে, এমনটাই জানাচ্ছে ভারতের বিদেশ মন্ত্রক। মঙ্গলবার সকালে জম্মু ও কাশ্মীরের শাহপুর ও কিরণি সেক্টরে বিশাল গুলিবর্ষণ চালায় পাক সেনা। তার উত্তরে ভারত শক্ত হাতে জবাব দেয়। হঠাত এই হামলার যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.