ঢাকাঃ সরকারেরর হুঁশিয়ারি থাকলেও কাশ্মীর ইস্যুতে মুখ খুলছে বাংলাদেশের ইসলামি সংগঠনগুলি।  ভারতের জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মাটিতে বিক্ষোভ দেখাল হেফাজতে ইসলান এবং জামাত ইসলামি। একটি মসজিদের সামনে ভারতের বিরুদ্ধে স্লোগান তুলতে দেখা যায় সংগঠনের নেতাদের। হেফাজতে ইসলামের সরকারপন্থী নেতারাও একসঙ্গে অংশগ্রহণ করেন ।

তৈরি হয়েছে “কাশ্মির সংহতি পরিষদ”। এই সংগঠনের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিলে বিপুল সংখ্যক জামাত নেতা কর্মীরাও অংশ নেয়। ধর্মীয় নেতা খলিলুর রহমান মাদানী বলেন, ‘কাশ্মীরে মুসলমানদের ওপর নির্যাতন করা হচ্ছে। অচিরেই সেখানে মুসলমানদের কাছে তাদের স্বাধীনতার সার্বভৌমত্ব ফিরিয়ে দিতে হবে। কাশ্মীরে মুসলমানদের পক্ষে সর্বস্তরের মুসলমানদের রাজপথে নামতে হবে।’

অন্যদিকে, কোনও অবস্থায় ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিশেষ করে কাশ্মীর সংক্রান্ত উস্কানিমূলক বার্তা বরদাস্ত করা হবে না। এমনই জানিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। RAB বাহিনির ডিজি বেনজীর আহমেদ সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, ‘আশা করব ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়টি নিয়ে দেশে পানি ঘোলা করার চেষ্টা করবেন না।’ তাঁর এই মন্তব্য ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ সহ আরও কিছু ধর্মীয় সংগঠনের প্রতি বলে মনে করা হচ্ছে। সম্প্রতি এই সংগঠন বারে বারে ভারত বিরোধী অবস্থান নিয়ে ঢাকা অচল করেছে।