বেঙ্গালুরু : সরকারের ভাঁড়ারে টান পড়ছে৷ তাই এবার রাজস্ব বাড়ানোর উপায় খুঁজতে ৯০০ মদের দোকান ফের খোলার সিদ্ধান্ত নিল কর্নাটকের কংগ্রেস সরকার। এর মধ্যে ৩০টি দোকান আবার খোদ বেঙ্গালুরু শহরেই ৷ মহীশূরের একটি সংস্থা মাইসোর সেলস ইন্টারন্যাশানাল লিমিটেড (‌এমএসআইএল)‌ এই দোকানগুলো চালাবে।

কর্নাটকের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব আইএসএন প্রসাদ জানিয়েছেন, ‌জাতীয় সড়কের পাশে মদ বিক্রি করা যাবে না বলে যে নির্দেশিকা এসেছে তা মানতে গিয়ে ক্ষতি হচ্ছে রাজস্বের৷ সেই ক্ষতি পুষিয়ে দিতেই এবার ফের ধাপে ধাপে মদের দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল৷ বর্তমানে ‌ এমএসআইএল অধীনে মোট ৪৬৩ টি মদের দোকান রয়েছে।

আরও পড়ুন: কলেজ পড়ুয়াদের বিনামূল্যে Wi-Fi পরিষেবা দেবে রিলায়েন্স জিও

গত বছরই এই মদের দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সিদ্দারামাইয়া সরকার। তখন এই সিদ্ধান্তের বিরোধীরা করা হয় ৷ কারণ বিরোধীদের অভিযোগ ছিল, খরা আক্রান্ত রাজ্যে মদের দোকান খুললে কৃষকরা ঋণজালে জড়িয়ে পড়বে। ফলে তখন পিছু হটে সরকার।

এমএসআইএল আপাতত প্রথম ধাপে ৩৫০ মদের দোকান খোলার জন্য টেন্ডার দিচ্ছে৷ তবে এক্ষেত্রে একটা শর্ত রাখা হয়েছে দোকানের আসবাবপত্রগুলি যেন সহজে খুলে নিয়ে সরিয়ে নেওয়া যায় কারণ প্রয়োজন পড়লে তা অন্যত্র সরিয়ে দেওয়া হবে৷ ‌জাতীয় সড়কের পাশে মদ বিক্রি করা যাবে না বলে নির্দেশিকা আসায় তা মানতে গিয়ে প্রায় ৭০০ মদের দোকান বন্ধ হয়ে যায় কর্নাটকে৷ টান পড়ে রাজ্যে রাজস্বতেও৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।