বেঙ্গালুরু: বিদ্যুৎমন্ত্রীর বাড়িতে আচমকা হানা দিয়ে প্রায় সাত কোটিরও বেশি টাকা উদ্ধার করল আয়কর দফতর৷ বুধবার কর্ণাটকের বিদ্যুৎমন্ত্রী ডিকে শিবকুমারের বাড়ি সহ একাধিক ডেরায় হানা দেয় আয়কর দফতরের আধিকারিকরা৷ সব মিলিয়ে প্রায় ৭.৫ কোটি টাকা উদ্ধার হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ সূত্রের খবর, এর মধ্যে শুধুমাত্র ৫ কোটি টাকা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বাড়ি থেকেই উদ্ধার করেছে আয়কর দফতরের আধিকারিকরা৷

আরও পড়ুন: কং মন্ত্রীর বাড়িতে আয়কর হানায় শাসক-বিরোধী তরজা রাজ্যসভায়

গুজরাট রাজ্যসভা নির্বাচনের আগে দলে ভাঙন ঠেকাতে কর্ণাটকের মন্ত্রী ডিকে শিবকুমারের গল্ফ রিসোর্টে ৪২ কংগ্রেস বিধায়ককে পাঠিয়ে দেয় কংগ্রেস৷এদিন সেই শিবকুমারের বাড়ি সহ একাধিক ডেরায় হানা দেয় আয়কর দফতরের আধিকারিকরা৷ উদ্ধার হয় সাড়ে সাত কোটি টাকা ৷এমনটাই দাবি আয়কর দফতর সূত্রে৷

আরও পড়ুন: অস্বস্তিতে ফেলতে কর ফাঁকিবাজদের নাম প্রকাশ করছে আয়কর দফতর

এদিকে এই ইস্যুকে কেন্দ্র সকরে সকাল থেকে রাজ্যসভায় তুমুল বিক্ষোভ দেখায় বিরোধীরা৷ ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস সাংসদরা৷শেষপর্যন্ত এদিনের জন্য রাজ্যসভা মুলতুবি ঘোষণা করে দেন স্পিকার পিজে কুরিয়েন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।