নয়াদিল্লি: বিজেপি নেতা অনুরাগ ঠাকুরের মন্তব্যকেই সমর্থন কর্নাটকের মন্ত্রী সিটি রবির৷ বরং অনুরাগ ঠাকুরের বক্তব্যকেও ছাপিয়ে গেল সিটি রবির মন্তব্য৷ ‘দেশদ্রোহিদের গুলি করা হবে না তো কি বিরিয়ানি খাওয়ানো হবে?’ অনুরাগ ঠাকুরের বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে মন্তব্য কর্নাটকের বিজেপি নেতার৷

দিল্লি বিধানসভা ভোট যতই এগোচ্ছে রাজধানীতে রাজনৈতিক উত্তেজনার পারদ ততই বাড়ছে। দিল্লি জুড়ে এখন নির্বাচনী প্রচার জমজমাট। একদিকে বিগত ৫ বছরের উন্নয়নের খতিয়ান নিয়ে আম-আদমির দরবারে আপ নেতারা। উলটোদিকে আপ সরকারকে কাঠগড়ায় তুলে প্রচারে শান দিচ্ছে গেরুয়া শিবির। একইভাবে ক্ষমতায় ফিরতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে কংগ্রেসও।

সোমবার দিল্লিতে নির্বাচনী প্রচারে বেরিয়ে দিল্লিতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে আন্দোনকারীদের কড়া হুঁশিয়ারি দেন অনুরাগ ঠাকুর৷ অনুরাগ ঠাকুর বলেন, ‘দেশদ্রোহিদের গুলি করে মারা উচিত৷’ অনুরাগের সেই বক্তব্যকেই এবার সমর্থন কর্নাটকের বিজেপি নেতার৷ এরই পাশাপাশি অমিত শাহের ‘টুকরে টুকরে গ্যাং’ মন্তব্য নিয়েও সিএএ বিরোধীদের নিশানা করেছেন ওই বিজেপি নেতা৷ কর্নাটকের মন্ত্রী সিটি রবি বলেন, ‘জঙ্গি আজমল কাসভ, ইয়াকুব মেননের ফাঁসির বিরোধিতা করে টুকরে টুকরে গ্যাং৷ এরাই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে মানুষকে মিথ্যা বলছেন, বিভ্রান্ত করছেন৷’

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে দেশজুড়ে কেন্দ্র বিরোধিতা ক্রমেই আরও জোরদার হচ্ছে৷ রাজধানী দিল্লির শাহিনবাগে একটানা চলছে মহিলাদের আন্দোলন৷ নাগরিকত্ব আইন বাতিল না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা৷ দিল্লির ভোট প্রচারে বেরিয়ে বিজেপি নেতা-মন্ত্রীদের মুখে রোজই শাহিনবাগ আন্দোলন প্রসঙ্গ উঠে আসছে৷ বিজেপির তরফে বিরোধীদের একাংশের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের সমর্থনেরও অভিযোগ তোলা হচ্ছে৷

এদিকে, অনুরাগ ঠাকুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছে কংগ্রেস৷ যদিও অনুরাগের বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে সুর আরও চড়ানোয় এবার কর্নাটকের বিজেপি নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী সিটি রবির বিরুদ্ধে কমিশনে কোনও অভিযোগ জমা পড়ে কিনা তা সময়ই বলবে৷

দিল্লির নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, আম আদমি পার্টি এবং বিজেপির তিক্ততাও ততই বাড়ছে। ভোটের লড়াইয়ে শাসক-বিরোধী কোনও পক্ষই একে অপরকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তেও নারাজ৷ একইভাবে আবারও দিল্লি বিধানসভা দখলে চেষ্টার কসুর করছে না কংগ্রেসও৷ আপ ও বিজেপিকে দুষে একের পর এক সভা-মিছিল করছে কংগ্রেস৷

আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে বিধানসভা ভোট৷ দিল্লির ৭০টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে৷ আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি দিল্লি বিধানসভার ভোটের ফল ঘোষণা হবে৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও