ফাইল ছবি

বেঙ্গালুরু: বিয়ে করতে বসেও বাতিল হয়ে যেতে পারে বিয়ে। তার অনেক রকম কারণও থাকে। তাই বলে শাড়ী খারাপ বলে বিয়ে বাতিল! এমনটাও হয়!

এরকমই ঘটনা ঘটল কর্ণাটকে। বিয়ের ঠিক আগেই উধাও বর। বরের পরিবারই বাতিল করে দিয়েছে বিয়ে। কারণ, পাত্রীর শাড়ি ভালো নয়। বেপাত্তা হয়ে যাওয়া বরের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলাও হয়েছে। তাঁকে পলাতক হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ।

বিয়ে শুরুর আগে অনুষ্ঠান চলছিল। কনে যে শাড়ী পরেছিল, তা পাল্টাতে বলে পাত্রপক্ষের লোকজন। শাড়ীর মান ভালো নয় বলে দাবি করে তারা। এরপরই বিয়ে বাতিল হয়ে যায়। সুবিধে না দেখে বেপাত্তা হয়ে যায় বর।

কর্ণাটকের হাসানের বাসিন্দা ওই ব্যক্তির নাম বিএন রঘুকুমার। তাঁকে আর কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি। বাবা-মায়ের কথাতেই সে পালিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

অবশেষে পুলিশের দ্বারস্থ হয় পাত্রীপক্ষ। বরের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা দায়ের করা হয়েছে। বরের বাবা-মায়ের নামেও মামলা হয়েছে।

বছর খানেক আগে রঘুকুমার ও সঙ্গীতা একে অপরের প্রেমে পড়ে। এরপরই বিয়ে ঠিক হয়। দুই পরিবারের সম্মতিতেই বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু বিয়ে শুরু হতেই শাড়ী নিবে বাধে বিপত্তি। বরের বাবা-মা ছেলেকে পালিয়ে যেতে বলেন, সেই মতই পালিয়ে যায় সে।