বেঙ্গালুরু: নতুন করে লকডাউন জারি করল কর্ণাটক সরকার। বেঙ্গালুরু শহর ও তার আশপাশের এলাকা জুড়ে এই লকডাউন জারি করা হয়েছে। ৩৩ ঘন্টা লকডাউন জারি থাকবে। শনিবার রাত ৮টা থেকে সোমবার ভোর ৫টা পর্যন্ত বলবৎ করা হবে এই নির্দেশিকা।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতেই এই ব্যবস্থা রাজ্য সরকারের বলে জানা গিয়েছে। রাজ্যে ক্রমশ বেড়ে চলা করোনা সংক্রমণ রুখতেই এই সিদ্ধান্ত। গত বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে এই সংক্রমণ লাগাতার বাড়ছে। সংবাদসংস্থা এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ব্রুহৎ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকে কমিশনার অনিল কুমার জানিয়েছেন বিবিএমপি এলাকাভুক্ত অঞ্চলে লকডাউন জারি করা হয়েছে।

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পার নির্দেশে লকডাউন জারি করা হয়েছে। এদিন অনিল কুমার জানান শুধু জরুরি পরিষেবা ছাড়া আর কোনও যানবাহন চলাচলের অনুমতি দেওয়া হবে না। লকডাউনের এলাকা জুড়ে কড়া নজরদারি থাকবে পুলিশের। লকডাউনের নিয়ম ভাঙলে, তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে বিবেচিত হবে।

ইতিমধ্যে কর্ণাটক সরকার উচ্চ পর্যায়ের টাস্ক ফোর্স গঠন করেছে। বেঙ্গালুরু জুড়ে ৮৮০০টি ছোট ছোট কমিটি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের দায়িত্বে রয়েছে। গোটা রাজ্যেই এরকম ছোট ছোট কমিটি গড়ে তোলার ইচ্ছা রয়েছে রাজ্য সরকারের। এই টাস্ক ফোর্স রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার নির্ধারিত লকডাউন বিধি লাগু করার ও নিয়ম মানা হচ্ছে কীনা, তার দেখাশোনা করে।

বেঙ্গালুরুর ১৯৮টি ওয়ার্ডের মধ্যে দুটি করে অ্যাম্বুলেন্স রাখারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এদিকে, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চের রিপোর্ট কিন্তু সেকথাই বলছে। আইসিএমআর জানাচ্ছে ১৫ই অগাষ্টেই লঞ্চ করা হবে দেশের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন। কোভ্যাক্সিন নামের ওই ওষুধের জন্য ট্রায়ালের ব্যবস্থা করেছে আইসিএমআর।

এই ওষুধ যৌথভাবে তৈরি করছে আইসিএমআর, ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড ও পুনের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজি।এই ওষুধের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য বেশ কয়েকটি সংস্থাকে বেছে নেওয়া হয়েছে।

সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরি ভ্যাকসিনটির বিজ্ঞানসম্মত নাম BBV152 কোভিড ভ্যাকসিন। আইসিএমআর জানাচ্ছে এই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল প্রায়োরিটি প্রজেক্ট হিসেবে মান্যতা পাচ্ছে। ১৫ই অগাষ্টেই মুক্তি পাচ্ছে এই কোভ্যাক্সিন বলে জানিয়েছে আইসিএমআর। সব ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শেষ করে ফেলা হবে তার মধ্যেই বলে খবর।.

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ