বেঙ্গালুরু: আবারও সংবাদ শিরোনামে কর্নাটকের বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্য। ‘দেশের শাসনভার হিন্দুদের হাতেই থাকা উচিত বলে টুইট করে ফের নয়া বিতর্ক তৈরি করলেন বেঙ্গালুরু দক্ষিণ লোকসভা কেন্দ্রের এই তরুণ বিজেপি সাংসদ।

কয়েকমাস আগেও তাঁর আরবের মহিলাদের নিয়ে একটি টুইট ঘিরেও তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়। শেষমেশ টুইটটি মুছে দিতে বাধ্য হন তিনি। এবারও তাঁর এই টুইটটি ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ইতিমধ্যেই একাধিক সংগঠনের তরফে বিজেপি সাংসদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি উঠেছে।

টুইট করে ফের বিতর্ক তৈরি করেছেন কর্নাটকের বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্য। বুধবার অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজোয় অংশ নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ওই দিনই টুইটে এই বিজেপি সাংসদ লেখেন, ‘দেশের শাসনক্ষমতা যে হিন্দুদের হাতেই থাকা উচিত আজকের ঘটনা থেকে গুরুত্বপূর্ণ এই বিষয়টি আমরা শিখলাম। আমাদের হাতে দেশের ক্ষমতা যখন ছিল না তখন আমরা আমাদের মন্দির খুইয়েছিলাম। ক্ষমতায় ফিরে নতুন করে মন্দির তৈরি করেছি।’

এদিক, বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্যের এই টুইট ঘিরে ইতিমধ্যেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে। ধর্মনিরপেক্ষ দেশে একজন সাংসদ হিসেবে কীভাবে তেজস্বী একথা বলতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে একাধিক সংগঠন। এমনকী রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ও উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ড়ুকে তেজস্বীর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছে বিভিন্ন সংগঠনের তরফে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা