বেঙ্গালুরু: ফের বিজেপি নেতার মন্তব্য ঘিরে বিতর্ক ছড়াল। এবার তালিকায় নবতম সংযোজন কর্নাটকের বিজেপি নেতা আর অশোক। দেশবিরোধীদের গুলি করে মারা উচিত বলে মন্তব্য করলেন ওই বিজেপি নেতা। একইসঙ্গে সংখ্যালঘুদের বিশেষ প্যাকেজ দেওয়া প্রসঙ্গেও ঘোর আপত্তি জানালেন ওই বিজেপি নেতা।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি নিয়ে কেন্দ্র-বিরোধিতার সুর যতই চড়া হচ্ছে ততই পালটা সওয়াল করতে গিয়ে ক্রমেই বিতর্ক বাড়াচ্ছেন বিজেপির নেতা-মন্ত্রীরা। এবার কর্নাটকের বিজেপি নেতা আর অশোকের একটি মন্তব্য ঘিরে ছড়াল বিতর্ক। বিজেপি নেতার সাফ কথা, ‘পাকিস্তানের সুরে যাঁরা গলা মেলাচ্ছেন, দেশবিরোধী কাজে যাঁরা মদত দিচ্ছেন, তাঁরা হিন্দু হন বা খ্রিস্টান বা মুসলিম, তাঁদের অবশ্যই গুলি করে মারা উচিত।’

এরই পাশাপাশি সংখ্যালঘুদের বিশেষ প্যাকেজ দেওয়া নিয়েও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ওই বিজেপি নেতা৷ এই প্রসঙ্গে আর অশোক বলেন, ‘উন্নয়নমূলক কাজের জন্য় টাকার দরকার হলে বা বিশেষ প্যাকেজ চাইতে আমাদের কাছে আসেন সংখ্য়ালঘুরা। কিন্তু সেই কাজ মিটে গেলেই ভোটের সময় তাঁরা কংগ্রেস বা জেডিএসকে ভোট দেন ৷ তাই ওই সম্প্রদায়ের জন্য যাতে কোনও বিশেষ প্যাকেজ দেওয়া না হয় তার জন্য় সংশ্লিষ্ট মহলে দরবার করব৷’

কর্নাটকের রাজস্ব মন্ত্রী আর অশোক৷ তবে শুধু অশোকই নন এর আগেও কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার রাজনৈতিক সচিব রেণুকাচার্যেরও সংখ্যালঘুদের নিয়ে করা মন্তব্য ঘিরে বিতর্ক ছড়ায়। সংখ্য়ালঘুদের তীব্র আক্রমণ করেছিলেন রেণুকাচার্য৷ তিনি বলেন, ‘মসজিদে অস্ত্র লুকিয়ে রাখে মুসলিমরা’৷ একইসঙ্গে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভকারীদেরও হুমকি দিয়েছিলেন ওই বিজেপি সাংসদ৷