মুম্বই: দ্বিতীয়বার মা হতে চলেছেন অভিনেত্রী করিনা কাপুর। বহুদিন ধরেই জল্পনা চলছিল বি-টাউনে। অবশেষে করিনা কাপুর খান ও সইফ আলি খান নিজেরাই ঘোষণা করলেন যে তাদের জীবনে আরও এক সন্তান আসতে চলেছে। এই খুশির খবর জেনে উচ্ছ্বসিত সইফ ও করিনার ভক্তরা।

সইফ ও করিনা একটি পোস্টের মাধ্যমে জানান, “আমরা আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে আমাদের পরিবারে নতুন এক সদস্য আসতে চলেছেন। আমাদের সকল শুভাকাঙ্খী, যারা আমাদের সমর্থন করেছেন ও ভালোবাসা দিয়েছেন তাদের জানাই ধন্যবাদ।”

এই বিষয়ে করিনা কাপুরের বাবা রণবীর কাপুরকে সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়া জিজ্ঞাসা করেছিল। তখন রনধীর কাপুর বলেছিলেন, “আমি আশা করছি এই তথ্য সত্যি। আর এটা যদি সত্যি হয় আমি খুব খুশি হব। পরস্পরকে সঙ্গ দেওয়ার জন্য দুটি সন্তান হওয়া খুব জরুরি।”

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে সইফ আলি খানের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন করিনা কাপুর। সেই বিয়ে ছিল বলিউডের অন্যতম বিলাসবহুল বিয়ে। এরপর ২০১৬ সালে সইফ করিনা জন্ম দেন তাঁদের প্রথম সন্তান তৈমুর আলি খানের। স্টার কিডদের মধ্যে তৈমুর খুবই জনপ্রিয়। জ্ঞান হওয়ার আগেই সে সেলিব্রিটি তকমা পেয়ে গিয়েছে।

মা বাবার হাত ধরে যখনই ছোট্ট তৈমুর বেরোয় তখনই পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় ধরা পড়ে সে। পাপারাৎজিদের সঙ্গে এক রকমের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তার। আর তার ছবি একবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হলে রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যায়। করিনা ও সইফের দ্বিতীয় সন্তানকে নিয়েও একই রকমের উত্তেজনা থাকবে আশা করাই যায়।

প্রসঙ্গত করিনা আমির খানের বিপরীতে লাল সিং চাড্ডা ছবিতে অভিনয় করার জন্য ব্যস্ত ছিলেন। কিন্তু সেই ছবির শুটিং হঠাৎই থমকে যায়।

কারণ তখন বিশ্বজুড়ে কোন ভাইরাসের প্রকোপ ছড়ায়। জানা যাচ্ছে লাল সিং চাড্ডা হলিউডের বিখ্যাত ছবি ফরেস্ট গাম্প এর হিন্দি রিমেক। তাই ছবিটি নিয়ে দর্শকদের মধ্যে ইতিমধ্যেই জল্পনা তৈরি হয়েছে। ২০২০-র ক্রিসমাসে ছবিটি প্রথম মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু যেহেতু শুটিং বন্ধ হয়ে গেছিল তাই ছবি মুক্তির তারিখ পিছিয়ে গিয়েছে। জানা যাচ্ছে ছবিটি মুক্তি পাবে ২০২১ এর ক্রিসমাসে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও