মুম্বই: ড্রাগ কাণ্ডে উঠে আসছে একের পর এক প্রথম সারির নাম। দীপিকা পাদুকোন, সারা আলি খানের মত অভিনেত্রীদের পর এবার কে? তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

ড্রাগ কেলেঙ্কারির তদন্তে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো ক্ষিতিজ প্রসাদ নামে এক ব্যক্তিকে তলব করে। জানা যায়, তিনি করণ জোহরের ধর্ম প্রোডাকশনের কর্মি। কিন্তু, শুক্রবার রাতে এই বিষয়ে একটি বিবৃতি দেন করণ। তিনি সাফ জাননা, ক্ষিতিজ তাঁর ঘনিষ্ঠ কেউ নয়।

তিনি জানান, ক্ষিতিজ প্রসাদ ও অনুভব চোপড়া নামে যে দু’জনকে ডাকা হয়েছে, তাঁদের তিনি ব্যক্তিগতভাবে চেনেন না। প্রযোজক জানান অনুভব চোপড়া তাঁর সঙ্গে দুটি প্রজেক্ট কাজ করলেও তিনি ধর্ম প্রোডাকশনের কর্মী নন।

প্রযোজনা সংস্থার ভাবমূর্তি রক্ষা করতে করণ বলেন, এরা ব্যক্তিগত জীবেন কী কাজ করেছে, তার দায় ধর্ম প্রোডাকশনের নয়।

কিছুদিন আগে করণ জোহরের বাড়িতে হওয়া একটি পার্টির ভিডিও ভাইরাল হয় ইন্টারনেটে। সেখানে দীপিকা, মালাইকা, শাহিদ কাপুর, ভিকি কৌশন, রণবীর কাপুরদের মত তারকাদের দেখা যায়। সম্প্রতি ড্রাগ কেলেঙ্কারি সামনে আসতে শুরু করায় ফের ভাইরাল হয় সেই ভিডিও। করণ বিবৃতিতে দিয়ে জানান, ওই পার্টিতে কেউ ড্রাগ নেয়নি।

এদিকে, মাদক যোগে নাম জড়ানোয় শুক্রবার অভিনেত্রী রকুল প্রীতকে জিজ্ঞাসাবাদ করল নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো। তাঁর বিরুদ্ধেও উঠেছিল মাদক নেওয়ার অভিযোগ। জিজ্ঞাসাবাদে রকুল প্রীত সিং স্বীকার করেছেন যে রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে তিনি মাদকের বিষয় কথা বলেছেন।

তিনি বলেছেন, রিয়ার সঙ্গে তিনিও মাদকের জোগান রাখতেন। তবে তিনি নিজে কখনও মাদক সেবন করেননি বলে দাবি করেছেন। বরং তিনি বলেছেন, রিয়ার জন্য তিনি মাদক রাখতেন। এই মাদক যোগে নাম জড়িয়েছে অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন ও তাঁর ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশেরও।

শুক্রবার রকুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করার আগে করিশ্মাকে জেরা করে এনসিবি। জানা যাচ্ছে, বলিউডে মাদক যোগের বিষয়ে রকুল প্রীত ও করিশ্মাকে সামনাসামনি বসিয়েও জিজ্ঞাসাবাদ করে এনসিবি।

এরই মধ্যে আরও একটি খবর প্রকাশ্যে এসেছে যে হোয়াটসঅ্যাপে মাদক নিয়ে কথা বলার জন্য ছিল একটি গ্রুপ। আর সেই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।