নয়াদিল্লি: আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথমবার হেরেছে ভারত৷ সোমবার বেসিন রিজার্ভে কিউয়িবাহিনীর কাছে ১০ উইকেটে পর্যুদস্ত হয়েছে টিম ইন্ডিয়া৷ বিরাটদের আত্মসমর্পণের সমালোচনা করেছেন প্রাক্তনরা৷ এবার মুখ খুললেন কপিল দেব৷ বিশ্বকাপ জয়ী ভারত অধিনায়ক বিরাটের দল নির্বাচন নিয়েই প্রশ্ন তুললেন৷

প্রথম একাদশে বারবার পরিবর্তন এবং ফর্মে থাকা ক্রিকেটারকে বাইরে রাখায় বিরক্ত প্রকাশ করেন কপিল৷ ওয়েলিংটনে সিরিজের প্রথম টেস্টে ভারতের ১০ উইকেটে হারের পরেই টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত নিয়েই প্রশ্ন তুললেন বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক।

কপিল বলেন, ‘আমাদের নিউজিল্যান্ড দলের প্রশংসা করতেই হবে৷ ওরা দারুণ ক্রিকেট খেলছে৷ প্রথম তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ এবং তারপর এই টেস্ট৷ কিন্তু আমি বুঝে উঠতে পারছি না ভারতীয় দলে কেন এত পরিবর্তন? প্রতি ম্যাচেই নতুন দল দেখা যাচ্ছে৷ দল এমনভাবে তৈরি করা উচিত, যাতে ক্রিকেটাররা আত্মবিশ্বাস পায়। দেখে মনে হচ্ছে দলে কেউই স্থায়ী নয়৷ নিশ্চয়তা না-থাকলে দলে তার প্রভাব পড়তে বাধ্য৷’

বেসিন রিজার্ভে সিরিজের প্রথম টেস্টে চূড়ান্ত ব্যর্থ বিরাট কোহলি, চেতেশ্বর পূজারা এবং অজিঙ্ক রাহানে৷ দুই ইনিংসে ব্যর্থ ভারতীয় টপ-অর্ডার৷ এ প্রসঙ্গে কপিল বলেন, ‘ব্যাটিং অর্ডারে এত বড় নাম থাকা সত্ত্বেও দুই ইনিংসে ২০০ রান করতে না-পারেল জেতা কখনও সম্ভব নয়৷ ভারতীয় দলকে পরিকল্পনা ও কৌশলগত ভাবে আরও ফোকাস হতে হবে৷’

পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর ঘুরে দাঁড়িয়ে ওয়ান ডে সিরিজ এবং প্রথম টেস্ট জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড৷ টি-২০ সিরিজের সেরা ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুলকে টেস্ট দলে না-রাখ নিয়েও টিম ম্যানেজমেন্টকে একহাত নেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক৷ তিনি বলেন, ‘আমরা যখন খেলতাম তখনের সঙ্গে এখনকার অনেক পার্থক্য রয়েছে৷ টিম তৈরি করতে হলে খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস বড়ানোর সুযোগ দিতে হবে৷ কিন্তু দলে এত পরিবর্তন করলে তা কখনই সম্ভব নয়৷ রাহুল দারুণ ফর্মে থাকা সত্ত্বেও ওকে বসিয়ে রাখার কোনও মানে হয় না৷ আমি মনে করি, যখন কোনও প্লেয়ার ফর্মে থাকে তাকে খেলাতে হয়৷’ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ টেস্ট শনিবার থেকে ক্রাইশ্চচার্চে৷