স্টাফ রিপোর্টার, বেহুসরাই: রাস্তাজুড়ে কর্মী, সমর্থকদের ভিড়৷ যেখানে সেখানে রাখা রয়েছে বাইক, গাড়ি৷ চলা, হাঁটা দায়৷ প্রতিবাদ করেছিলেন স্থানীয়রা৷ অভিযোগ তাতে কান দেয়নি দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক কানহাইয়া কুমার ও চার দলবল৷ উলটে শুরু করে দেন বচসা৷

সেই বচসা ক্রমে হাতাহাতির রূপ নেয়৷ মারামারির জেরে আহত হন দুই পুজো উদ্যোক্তা৷ ভাঙচুর করা হয় বেশ কয়েকটি বাইক ও গাড়ি৷ বিহারের বেগুসরাই থানার অন্তর্গত এলাকার এই ঘটনায় একে ওপরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে৷

সোমবার ছিল দুর্গা পুজোর মহা ষষ্ঠী৷ উৎসবের প্রথম দিনই বেগুসরাইয়ে এক বন্ধুর বাড়িচে যান জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্র নেতা কানহাইয়া কুমার৷ সঙ্গে ছিল তার দলবল৷ অভিযোগ, দুর্গামণ্ডপের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন কানহাইয়া কুমারের ছেলেরা৷ রাস্তায় রাখা ছিল তাদের বাইক, গাড়ি৷ চলাচলে অসুবিধ হওয়ায় সেগুলি সরিতে নিতে বলেন স্থানীয়রা৷ কিন্তু প্রক্তন ছাত্র নেতার দলবল তাতে রাজি হয়নি৷ এক সময়ে স্থানীয়দের সঙ্গে মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন তারা৷

পরে অবশ্য অঞ্চল ছেড়ে চলে যায় কানহাইয়া ও তার ছেলেরা৷ স্থানীয়দের তরফে থানায় কানাইয়া কুমার সহ তার দলবলের বিরুদ্ধে মারধর, হিংসার অভিযোগ দায়ের করা হয়৷ বারাউনি থানায় বেগুসরাইয়ের ভগবানপুরের স্থানীয়দের বিরুদ্ধে ‘খুনের চেষ্টা’র পাল্টা অভিযোগ জানান জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্র নেতা৷
নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে পুলিশের দাবি৷