মুম্বই: বলিউডের অন্যতম ব্যতিক্রমী অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। ছবির ক্ষেত্রেও যেমন ব্যতিক্রমী চরিত্রে অভিনয় করতে ভালোবাসেন তিনি, তেমনই নিজের জীবনেও হটকে থাকেন। আর তাই প্রায়ই খবরের শিরোনামেও উঠে আসেন তিনি। এবার নিজের বিয়ের সম্পর্কে মন্তব্য করে আবার স্পটলাইট দখল করে নিলেন তিনি।

বলিউডে একের পরে এক তারকা সাত পাকে বাঁধা পড়ছেন। তাই ভক্তদের প্রশ্ন কঙ্গনা কবে বিয়ে করবেন। আর এই প্রশ্নের উত্তরেই কঙ্গনা বলেছেন, গোটা বিশ্ব যখন আমাকে চায়, তখন শুধু শুধু একজনের হয়ে থাকব কেন?

এই মুহূর্তে পাঙ্গা ছবির প্রচার নিয়ে ব্যস্ত কঙ্গনা। সেই ছবির পরিচালর অশ্বিনী আয়ার তিওয়ারি। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম প্রচারেই তাঁকে অশ্বিনীর সুখী বৈবাহিক জীবন নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হয়। এছাড়া বিয়ে বিষয়টি নিয়ে তাঁর কী মতামত তাও জানতে চাওয়া হয়। তখন কঙ্গনা বলেন, জীবন যখন এভাবে চলছে, তখন মাঝে মধ্যে ভাবি, সারা বিশ্ব তো আমাকে চায়! আমি কেন শুধু একজনের হয়ে রয়ে যাব? তা ছাড়া সময়ের সঙ্গে সঙ্গে যেভাবে জীবন গড়িয়েছে তাতে এখন আমি সম্পূর্ণ স্বাধীন। বিয়ে একটা ফাঁদ বলে মনে হয়। একাই যখন এত ভাল থাকতে পারছি, তখন বিয়ের কোনও অর্থ হয় না, তাই না?

এছাড়াও বলিউডের কুইন বলেন, বিয়ে করলে আবেগ, আর্থিক ও আত্মিকভাবে সঙ্গীর পাশে থাকা উচিত। যদি এই সব দিকে সমস্যা না থাকে, তবে বিয়ে করা যেতেই পারে। আর যদি তা নাও হয়, তাহলেও নিজের অস্তিত্ব সংকটে ভোগা উচিত নয়।

কঙ্গনা জানান, তাঁর বোন রঙ্গোলি চন্দেল ও তাঁর স্বামীর মধ্যে দারুণ সম্পর্ক। তাঁদের দাম্পত্য সুখের। সেরকম বোঝাপড়া যদি ভবিষ্যতে কারও সঙ্গে হয়, তা হলে বিয়েতে কোনও আপত্তি নেই বলেই জানিয়েছেন কঙ্গনা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I