নয়াদিল্লি: বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতকে ওয়াই-প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দিতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। সম্প্রতি মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করেন কঙ্গনা। অভিনেত্রীর এই মন্তব্যে ব্যাপক চটেছে মহারাষ্ট্র সরকারের একাধিক মন্ত্রী।

শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউতও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন অভিনেত্রীকে। এরই পাশাপাশি হিমাচল প্রদেশের মানালিতেও কঙ্গনার বাড়ির নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। কঙ্গনার বাড়ির সামনে পুলিশ মোতায়েন করেছে হিমাচল প্রদেশ সরকার।

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই খবরের শিরোনামে বলি-কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত। বলিউডের একাংশের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগে চলেছেন অভিনেত্রী। কঙ্গনা হিমাচল প্রদেশের বাড়িতে বসে সুশান্ত মৃত্যুতে মুম্বই পুলিশের তদন্তেরও তীব্র সমালোচনা করেছিলেন।

মহারাষ্ট্রে শিবসেনা নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারেরও বিরুদ্ধেও তোপ দেগেছিলেন তিনি। এমনকী এই সরকারের আমলে তিনি মুম্বইতে থাকতে নিরাপত্তার অভাব বোধ করেন বলেও মন্তব্য করেছিলেন। কঙ্গনার মন্তব্যে বেজায় চটেছে শিবসেনা। অভিনেত্রীকে মুম্বই থেকে দূরে থাকারও পরামর্শ দিয়েছেন সেনার নেতারা।

এরই মধ্যে এবার কঙ্গনার সুরক্ষায় ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে বলে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে। জানা গিয়েছে, কঙ্গনার ব্যক্তিগত সুরক্ষায় কমান্ডো-সহ ১১ সশস্ত্র পুলিশ থাকবে। এরই পাশপাশি কঙ্গনার হিমাচল প্রদেশের মানালির বাড়িরও সুরক্ষা বাড়ানো হয়েছে। বাড়ির বাইরে পুলিশ মোতায়ে ন করেছে হিমাচল প্রদেশ সরকার। এপ্রসঙ্গে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী জেআর ঠাকুর জানিয়েছেন, কঙ্গনার বাবা চিঠি লিখে তাঁর মেয়ের সুরক্ষার ব্যবস্থা করতে আবেদন জানিয়েছিলেন রাজ্য সরকারের কাছে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘কঙ্গনা আমাদের রাজ্যেরই মেয়ে। তাঁর বাবা আমায় চিঠি লিখে মেয়ের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে আবেদন জানিয়েছিলেন। ডিজিকে কঙ্গনার নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে বলেছি। পুলিশের একটি দল তাঁর মানালির বাড়ির বাইরে মোতায়েন করা হয়েছে।’’

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I