স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: এনআরসি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে মুকুল রায়ের খাসতালুক কাঁচরাপাড়ায় মিছিল করল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ৷ বুধবার কাঁচরাপাড়া কলেজ মোড় থেকে মিছিল শুরু হয়৷ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য, জেলা সভাপতি বাণীব্রত মণ্ডল, তৃণমূলের পরিষদীয় সচিব তথা নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, জেলা তৃণমূল সম্পাদক সুবোধ অধিকারী-সহ অন্য নেতারা৷ টিএমসিপির কয়েকশো কর্মী-সমর্থক মিছিলে যোগ দিয়েছিলেন৷ প্রতিবাদ মিছিলটি কাঁচরাপাড়া কলেজ মোড় থেকে শুরু হয়ে বীজপুর থানা মোড়ে এসে শেষ হয়৷

এনআরসির বিরুদ্ধে প্রথম থেকেই সরব তৃণমূল সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এনআরসির বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন মমতা৷ তৃণমূলনেত্রী নিজেও একাধিক সভায় সুর চড়িয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে৷ বাংলায় এনআরসি কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে বারবার জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশেই এনআরসি ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগেছেন রাজ্যের মন্ত্রীরাও৷ দলীয় নেত্রীর নির্দেশে রাজ্যের ব্লকে-ব্লকে চলছে প্রতিবাদ কর্মসূচি৷ দলের প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সামিল হচ্ছেন নেতা-মন্ত্রীরাও৷ গত কয়েকমাস ধরেই মোদি-শাহদের বিরুদ্ধে এনআরসি ইস্যুতে তোপ দেগে চলেছেন তৃণমূলনেত্রী৷ কেন্দ্রীয় সরকার মানুষে-মানুষে বিভেদ তৈরি করছে বলেও অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷ দেশজুড়ে বিজেপি সরকার বিভাজনের রাজনীতি করছে বলেও অভিযোগ মমতার৷

দলনেত্রীর নির্দেশেই এদিন কাঁচরাপাড়ায় প্রতিবাদ মিছিল করে টিএমসিপি৷ মিছিল শেষে বীজপুর থানা মোড়ে প্রতিবাদ সভা করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ৷ মিছিল শেষে ওই সভামঞ্চে ৫৭০ জন এভিবিপি কর্মী যোগ দেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদে৷ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য বলেন,‘বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র এলাকায় যাঁরা ভুল বুঝে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ছেড়ে এবিভিপিতে চলে গিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে বিভিন্ন কলেজের ৫৭০ জন কর্মী ফের আজ তৃণমূল ছাত্র পরিষদে ফিরে এলেন৷’