মুম্বই: কিংবদন্তি ক্রিকেটার তেন্ডুলকর ও স্ত্রী অঞ্জলি সোমবার তাঁদের ২৫তম বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করেছেন৷ তাঁদের শুভাকাঙ্ক্ষীদের মধ্যে ছিলেন সচিনের বাল্য বন্ধু বিনোদ কাম্বলি৷ যিনি এই দম্পতির জন্য একটি গানের ম্যাস-আপ করেছেন।

উত্সাহী ভক্ত থেকে এবং বিখ্যাত সেলিব্রিটিদের কাছে শুভেচ্ছা পেয়েছেন সচিন। তেমনই টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান কাম্বলিও এই দম্পতির প্রতি তাঁর শুভেচ্ছা জানিয়েছেন গানের মাধ্যমে৷ কাম্বলি দু’জনের জন্য ক্লাসিক গানের একটি ম্যাস-আপ গেয়ে সেই ভিডিওটি তাঁর অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেন৷

ক্যাপশনে কাম্বলি লেখেন, ‘মিঃ ও মিসেস তেন্ডুলকরকে বিবাহের বার্ষিকীর শুভেচ্ছা! এর জন্য গানের একটি ম্যাস-আপ উত্সর্গ করলাম৷
আপনাদের পার্টনারশিপের অপরাজিত ২৫ বছর!’ এর উত্তর দেন সচিনও৷ তিনি লেখেন, ‘কাম্বল্যা সুন্দর কামনার জন্য ধন্যবাদ। অঞ্জলি এবং আমি আপনার মেডলি পুরোপুরি উপভোগ করেছি৷’

১৯৯৫-এ গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন অঞ্জলির সঙ্গে। চরাই-উতরাইয়ের মধ্যে দিয়ে পেরিয়ে গেল পঁচিশটা বছর। বিবাহবার্ষিকীর সিলভার জুবিলি সেলিব্রেশনে তাই পুরো পরিবারকে নিজের হাতে বানানো এক ম্যাঙ্গো রেসিপি খাইয়ে সারপ্রাইজ দিলেন মাস্টার-ব্লাস্টার।

২৫তম বিবাহবার্ষিকীতে বাড়িতে বসেই নিজে হাতে ম্যাঙ্গো কুলফি বানিয়ে ফেললেন সচিন। ইনস্টাগ্রামে তাঁর অনুরাগীদের সঙ্গে সেই বিডিও শেয়ার করেন ম্যাঙ্গো কুলফি বানানোর পদ্ধতি। ম্যাঙ্গো কুলফি বানানোর ভিডিও বানাতে গিয়ে ব্যাটিং গ্রেট বলেন, ‘আমাদের বিবাহ-বার্ষিকীর জন্য সারপ্রাইজ এটা। পরিবারের সকলকে চমকে দিতে আমাদের ২৫তম বিবাহবার্ষিকীতে তৈরি করে ফেললাম এই ম্যাঙ্গো কুলফি।’

ম্যাঙ্গো কুলফি বানানোর পদ্ধতিও মাস্টার-ব্লাস্টার বাতলে দেন তাঁর স্বল্প সময়ের ভিডিওতে। উল্লেখ্য, ১৯৯০ আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের একদম শুরুতে টিন-এজ তেন্ডুলকরের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল অঞ্জলির। ৫ বছর বাদে ২৪মে, ১৯৯৫ সাতপাকে বাঁধা পড়েন দু’জনে। সম্প্রতি ইউনিভার্সিটি কলেজ অফ লন্ডন থেকে গ্র্যাজুয়েট হয়েছে মেয়ে সারা তেন্ডুলকর আর পুত্র অর্জুন ক্রিকেটে বাবার মতোই লক্ষ্যভেদের লক্ষ্যে এগোচ্ছেন। সবমিলিয়ে অবসরোত্তর জীবনে সারা-অর্জুনকে নিয়েই আবর্তিত সচিনের বেশিরভাগ সময়।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প