নিউজ ডেস্ক: বিশিষ্ট বাঙালি এবং জনসংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু বার্ষিকী পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তৃণমূল পরিচালিত সরকারের এই সিদ্ধান্তকে তীব্র কটাক্ষ করলেন বিজেপির জাতীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তিনি বললেন, “দেশ ভাঙার রাজনীতি করছেন মমতা।”

আরও পড়ুন- পরবর্তী কংগ্রেস সভাপতির দৌড়ে এগিয়ে অশোক গেহলট : রিপোর্ট

বঙ্গতনয় শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় জনসংঘ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। যা কেন্দ্রের বর্তমান শাসক ভারতীয় জনতা পার্তির উৎস। বাঙালি শ্যামাপ্রসাদকেই দলের প্রতিষ্ঠাতা মনে করে বিজেপি। রবিবার সেই নেতার জন্মদিনে দিল্লি থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিজেপি নেতারা।

এই বছরে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু বার্ষিকী পালন করা কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিশিষ্ট বাঙালি রাজনীতিবিদ হওয়ার কারণেই তাঁকে সম্মান জানানো হচ্ছে বলে দাবি করেছিল তৃণমূলের নেতারা।

আরও পড়ুন- কিশোরীর চিকিৎসার জন্য ৩০ লক্ষ টাকা পাঠিয়ে দিলেন মোদী

এই বিষয়ে রবিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে আক্রমণ করেছেন বিজেপি নেতা কৈলাস। তিনি বলেছেন, “তাঁর মৃত্যু দিন পালন করা আর তাঁর মতাদর্শ মেনে চলার মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে।” একই সঙ্গে তিনি আরও বলেছেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর(শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের) মৃত্যু দিন পালন করবেন বলেছেন তার জন্য আমি মমতা দিদিকে ধন্যবাদ জানাই।”

আরও পড়ুন- ‘আজাদ’ কাশ্মীরে নেই বিন্দুমাত্র স্বাধীনতা, দাবি স্থানীয় সমাজকর্মীর

এরপরেই শ্যামাপ্রসাদ মুখপাধ্যায়ের আদর্শ এবং বাংলার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতার উদ্দেশ্যে কৈলাস বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উচিত শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আদর্শ অনুসরণ করে চলা। বাংলায় চলতে থাকা হিংসা এবং রাজনৈতিক হিংসা বন্ধ হওয়ার জন্য সেই মতাদর্শ মেনে চলা একান্তই প্রয়োজন।”

পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, “ক্ষমতার জন্য বিরোধী রাজনৈতিক দলের কর্মীদের খুন করা হচ্ছে বাংলায়। শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এমন ভাবনা চিন্তা করতেন না। তাঁর রাজনৈতিক লক্ষ্য ছিল দেশকে ঐক্যবদ্ধ করা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশ ভাঙার রাজনীতি করছেন।”