কাবুল: আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ফের সন্ত্রাসবাদী হামলা৷ সোমবার স্থানীয় সময় ভোর পাঁচটার দিকে এই হামলা চলে৷ কাবুলের দ্য মার্শাল ফাহিম ন্যাশনাল ডিফেন্স ইউনিভার্সিটিতে রকেট হামলা চালায় জঙ্গিরা৷ এখনও পর্যন্ত ৫জন সেনা জওয়ান নিহত হয়েছেন বলে খবর৷

সকাল থেকেই ওই মিলিটারি অ্যাকাডেমির ভেতর থেকে গোলাগুলির আওয়াজ পেতে থাকেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ অ্যাকাডেমিটি কাবুল সিটি সেন্টারের পশ্চিম দিকে অবস্থিত। ঘটনাস্থল দফায় দফায় বিস্ফোরণ ও মুহুর্মুহু গুলির শব্দ শোনা গিয়েছে। প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় লক্ষ্য করে রকেট ছোঁড়া হয় বলে খবর৷

তবে ইসলামিক স্টেট, না তালিবান—কারা এই হামলা চালায়, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সূত্রের খবর, এই আফগান মিলিটারি অ্যাকাডেমি বহুদিন ধরেই জঙ্গি সংগঠনগুলোর নিশানায় ছিল। গত বছরের অক্টোবরেই এই মার্শাল ফাহিম সামরিক অ্যাকাডেমির বাইরে এক বিস্ফোরণে ১৫ জন সামরিক ক্যাডেট নিহত হন।

এরআগে, শনিবার কাবুলে বিস্ফোরক ভর্তি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে আত্মঘাতী হামলার রেশ কাটতে না কাটতেই এই হামলার ঘটনা ঘটল। জঙ্গিগোষ্ঠী তালিবানের ওই হামলায় ১০০ জন নিহত ও দেড়শোরও বেশি মানুষ আহত হন।
সম্প্রতি ইসলামিক স্টেট ও তালেবানরা আফগানিস্তানে হামলার পরিমাণ বাড়িয়েছে৷ শনিবারের আত্মঘাতী হামলার এক সপ্তাহ আগে কাবুলে আরেকটি হামলায় ২২ জন নিহত হন, যাদের বেশিরভাগই বিদেশি। তালিবান দুটি হামলার দায়ই স্বীকার করে। তবে সোমবারের হামলার দায় এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী স্বীকার করেনি। হতাহতের সঠিক পরিসংখ্যানও পাওয়া সম্ভব হয়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও অ্যাকাডেমির আবাসিকদের থেকে পাওয়া সূত্র অনুযায়ী স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টোলো জানিয়েছে, হামলার পর সেখান থেকে একের পর এক বিস্ফোরণের শব্দ আসছে। ধারণা করা হচ্ছে, সশস্ত্র জঙ্গিরা গুলি করতে করতে মিলিটারি একাডেমিতে ঢুকে পড়ে। ঘটনার পরেই আফগান সেনাবাহিনী ওই এলাকার সব রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। তবে এই গোলাগুলি বন্ধ হয়েছে বলে জানান হয়েছে আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের পক্ষ থেকে৷