দেবযানী সরকার, কলকাতা: মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশু রায়ের “ঘরের ছেলেকে বলো” ক্যাম্পেনকে খোঁচা দিলেন উত্তর 24 পরগণার তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি বললেন, এসব করে শুভ্রাংশু বলতে চাইছে ‘দিদি ডাকিলেই আসিব’।

“দিদিকে বলো”র পাল্টা “ঘরের ছেলেকে বলো” ক্যাম্পেন শুরু করেছেন বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়। ইতিমধ্যেই সেই হোর্ডিংয়ে ছেয়ে গিয়েছে গোটা বিধানসভা এলাকা৷ সেই হোর্ডিংয়ে বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়ের নিজস্ব মোবাইল নম্বর ৯০৫১৩৭৭০৬৮ ও একটি মেল আইডি দেওয়া হয়েছে। পোস্টারের পাশাপাশি এলাকায় বিলি করা হচ্ছে বিধায়কের নম্বর ও মেল আইডি দেওয়া একটি ভিজিটিং কার্ড। গেরুয়া রঙের ভিজিটিং কার্ডে শুভ্রাংশুর ছবি সমেত নম্বর ও মেল আইডি দিয়ে লেখা হয়েছে। এই নম্বরে ফোন করে স্থানীয়দের সমস্যার কথা জানাতে বলা হয়েছে৷

বিধায়ক শুভ্রাংশ রায়ের বক্তব্য, “আমি ৩৬৫ দিনই এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গে থাকি। “ঘরের ছেলেকে বলো” নতুন কিছু নয়। তবে এলাকার মানুষ যাতে এই পোষ্টার দেখে আমাকে মনে করেন। তাদের সুখ-দু:খের কথা আমার সঙ্গে ভাগ করে নেন। তার জন্যই এই উদ্যোগ।”

কিন্তু তাঁর এই উদ্যোগকে খোঁচা দিতে ছাড়েননি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি বলেন, “জানেন তো একটা কথা আছে, মায়ের কাছে ছেলে খুব মার খাওয়ার পর ভয়ে আর মায়ের কাছে আসতে পারে না। তখন সে দেওয়ালে লেখে ‘মা একবার ডাকিলেই আসিব’…এ অবস্থাটা ঠিক তেমনই। শুভ্রাংশও এসব করে বলতে চাইছে, ‘দিদি ডাকিলেই আসিব’। কিন্তু সেটা আর হবে না। দিদির দরজা ওদের জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছে। 2021-এর পর মুকুল রায়কে বিজেপি সারদা কেসে জেলে ঢুকিয়ে দেবে আর শুভ্রাংশুকে চোখের জল ফেলতে হবে”