স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর:  বিধাননগর মেয়র পদ থেকে সব্যসাচী দত্তকে সরানোর ইঙ্গিত জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের। হাবড়ায় তৃণমূলের কর্মী সভায় এসে তিনি জানান বিধাননগর পুরসভায় মোট ৪১ জন প্রতিনিধি আছে তার ভেতর ৩৯ জন তৃণমূলের।একজন সিপিএমের ও একজন কংগ্রেস কাউন্সিলর৷ তাঁদের বৈঠকে ডাকা হবে৷ তাঁদের থেকেই মত নেওয়া হবে যে তাঁরা সব্যসাচীকে মেয়র হিসেবে চাইছেন কীনা৷ এই কাউন্সিলর দিয়ে নিয়ে রবিবার বৈঠকে বসবেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এবং ফিরহাদ হাকিম।

তাঁর এই বক্তব্য থেকেই জল্পনা তৈরি হয়েছে৷ তাহলে কি সব্যসাচী দত্তকে মেয়র পদ থেকে সরানোর ইঙ্গিত দিলেন তিনি?  প্রসঙ্গত শুক্রবার রাতে বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্তের বাড়িতে মুকুল রায়ের যাওয়া নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন রাজনৈতিক চাপান উতোর৷

আরও পড়ুন : বারাসতে সব্যসাচীর বিজেপি প্রার্থী হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা

উল্লেখ্য রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক তথা বিধাননগর পুরনিগমের মেয়র সব্যসাচীর বিজেপি যোগের জল্পনা শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতির অন্দরমহলে। শুক্রবার রাতে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা বিধাননগর পুরসভার মেয়র সব্যসাচী দত্তের সঙ্গে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের বৈঠক হয়। বিজেপির নির্বাচন ম্যানেজমেন্ট কমিটির আহ্বায়ক মুকুল রায় রাজনীতিতে তাঁর ‘গুরু’ বলেই পরিচিত৷ সব্যসাচী দত্তের সঙ্গে দেড় ঘণ্টা বৈঠক করেন মুকুল রায়৷ সব্যসাচী দত্তের বিধাননগরের বাড়িতে ওই বৈঠক হয়।

এদিকে, সব্যসাচীর সঙ্গে মুকুল রায়ের বৈঠকের পরেই পরবর্তী কর্মসূচি ঠিক করতে রবিবার বৈঠকে বসছেন ফিরহাদ হাকিম ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ আজ বিকেলের দিকে এই বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷