কলকাতা: অগাস্ট মাস থেকেই এক দেশ, এক রেশন কার্ড ব্যবস্থা চালু হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। তবে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে খুশি নয় বাংলার খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তাঁর দাবি, ‘পশ্চিমবঙ্গে কেন্দ্রের ওই প্রকল্প কার্যকর হবে না। রাজ্যে চালু থাকবে খাদ্যসাথী প্রকল্পই।

বৃহস্পতিবারই ‘‌এক দেশ, এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা চালুর কথা জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী‌। এই ব্যবস্থায় দেশের নাগরিকরা যে প্রান্তেই থাকুন না কেন, স্থানীয় রেশন দোকানে গিয়ে তিনি রেশন-সামগ্রী সংগ্রহ করতে পারবেন। পরিযায়ী শ্রমিক বা গরিব মানুষ যাতে প্রয়োজনীয় রেশন পান, তার জন্যই কেন্দ্রের এই তৎপরতা বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

আগামী অগাস্ট মাসের মধ্যেই দেশের একটি বড় অংশের মানুষকে ‘এক দেশ, এক রেশন কার্ড’-এর আওতায় আনা সম্ভব হবে। ২০২১ সালের মার্চ মাসের মধ্যে গোটা দেশের রেশন ব্যবস্থা খোলনলচে বদলে ফেলা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

‘এক দেশ, এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা কার্যকর হলে দেশের ২৩ রাজ্যের ৬৭ কোটি মানুষ উপকৃত হবেন বলে দাবি করেছেন নির্মলা সীতারমন। নয়া এই ব্যবস্থা চালু হলে গোটা দেশে পাবলিক ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেমের ৮৩ শতাংশ মানুষ এই প্রকল্পের আওতায় আসবেন বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

এদিকে, কেন্দ্রের ওই প্রকল্প এরাজ্যে কার্যকর করা যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর চালু করা খাদ্যসাথী প্রকল্পই বহাল থাকবে। রাজ্যের প্রকল্পের মাধ্যমেই উপকৃত হবেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। রাজ্য সরকারের প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলার ৯ কোটি মানুষ খাবার পান।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.