স্টাফ রুপোর্টার, বারাসত: পুলিশ পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে রাজ্যের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে বিজেপির গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার অনুমতি দেওয়া যাবে না৷ রাজ্যের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি৷ তাতে অবশ্য কমছে না শাসক বিরোধী চাপানউতোর৷ রবিবার হাবড়ায় বিজেপির গণতন্দ্র বাঁচাও যাত্রাকে প্রমোদ যাত্রা বলে কটাক্ষ করলেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক৷

আরও পড়ুন: ‘বর্ণপরিচয় ভুলে নাতিকে মদের বোতল দেয় মদন’

তিনি বলেন, ‘‘ওটা রথ না, একটা বড় বাস ছিল, যেখানে স্নান করা যাবে, খাওয়া দাওয়া করা যাবে, মলমূত্র ত্যাগ করা যাবে । ওটায় করে ওনারা ঘুরে বেড়াবেন আর বাসের মাথা দিয়ে উঁকি মেরে বোঝাবেন উনারা আছেন । ওটা আসলে ওদের ফুর্তি যান মানে প্রমোদ যান ছিল।’’

 

উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ার কলতান প্রেক্ষাগৃহে ১৯শের ব্রিগেড সমাবেশের প্রস্তুতি সভা ছিল এদিন৷ সেখানেই আসেন খাদ্যমন্ত্রী৷ সমাবেশ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘‘ওরা ধর্মের নামে দেশকে বিভাজন করতে চাইছে । সেটা হবে না । এদেশে হিন্দু মুসলমান সহাবস্থান ছিল, সেই সহাবস্থান বজায় থাকবে।

আরও পড়ুন: বুথগুলিতে বিরোধী এজেন্ট শূন্য, শাসকের হাসি চওড়া

নরেন্দ্র মোদী ৫ রাজ্যে হেরেছে। এরপর যতগুলো রাজ্যে ভোটে ওরা লড়বে সে পঞ্চায়েতে থেকে লোকসভা পর্যন্ত সব ভোটে ওরা হারবে।’’ আসন্ন লোকসভা ভোটের পরিপ্রেক্ষিতে ১৯ শে জানুয়ারির ব্রিগেড সমাবেশ ঐতিহাসিক সমাবেশ হতে চলেছে। ব্রিগেড ভরাতে জেলা থেকে প্রায় ১০ লক্ষ সমর্থক আসবে বলে শনিবারই পানিহাটিতে আশাপ্রকাশ করেন যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ লক্ষ্য পূরণে আগামী একমাস ধরে৷