সিডনি: করোনা সংকট কাটিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ক্রিকেট শুরু হোক, তবে সেটা বন্ধ দরজার মধ্যেই। এমনটাই মনে করেন অস্ট্রেলিয়া কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। বাকি সমস্ত স্পোর্টস ইভেন্টের সঙ্গে পৃথিবীব্যাপী স্তব্ধ ক্রিকেট। এমন সময় লকডাউন কিংবা নিষেধাজ্ঞা উঠলেও গ্যালারি ভর্তি স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হওয়ার বিষয়টি হয়তো একটু সময়সাপেক্ষ হবে। তাই ক্রিকেটাররা কিংবা বিভিন্ন দেশ ক্লোজ-ডোর ক্রিকেটকেই বেছে নেবে বলে মনে করেন প্রাক্তন অজি ওপেনার।

বিবিসি রেডিও’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ল্যঙ্গার বলেছেন, ‘আমরা প্রত্যেকেই কম বয়সে যখন ক্রিকেট খেলা শুরু করি, তখন খেলা দেখতে কোনও দর্শক হাজির থাকে না। আমরা তখন ভালোবাস থেকেই ক্রিকেটটা খেলি। খেলার মজা তো থাকেই, সঙ্গে থাকেন সতীর্থরা। আর এক্ষেত্রে ক্লোজ-ডোর শুরু হলেও টেলিভিশন কিংবা রেডিওর মাধ্যমে বিনোদন দেওয়া সম্ভব ক্রিকেটপ্রেমীদের।’

উল্লেখ্য, বিশ্ব মহামারী করোনার কারণে পৃথিবীব্যাপী সমস্ত স্পোর্টস ইভেন্ট বন্ধ হওয়ার আগে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে ক্লোজ-ডোর ওয়ান-ডে সিরিজে অবতীর্ণ হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ল্যাঙ্গার প্রশিক্ষণাধীন অস্ট্রেলিয়া সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতলেও সিডনি এবং হোবার্টে সিরিজের বাকি ম্যাচদু’টি বাতিল হয়ে যায়।

আপাতত বিশ্বব্যাপী করোনার যে কড়াল গ্রাস সেটা থেকে বেরিয়ে চটজলদি ক্রিকেট শুরু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। আর যদি ক্রিকেট শুরু করতেই হয় তবে বন্ধ দরজার মধ্যেই শুরু করা সবচেয়ে উপযুক্ত বলে মনে করেন ল্যাঙ্গার। সবচেয়ে বড় কথা ক্রিকেটটা অন্তত শুরু হলে তা অনুরাগীদের বুস্ট আপ করবে বলে মনে করেন ল্যাঙ্গার।

উল্লেখ্য, গত ২৯ মার্চ থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও করোনার কারণে তা বিশ বাঁও জলে। লকডাউনের কারণে ১৫ এপ্রিল অবধি স্থগিত তা। কিন্তু তারপরে লিগ শুরুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়ে আদৌ তা শুরু করা সম্ভব হবে কীনা, নিশ্চিত নয় একেবারেই।