জুন মালিয়া: বন্ধুত্বের সংজ্ঞা কখনওই এক ফ্রেমে আটকানো সম্ভব নয়৷ আমার কাছে বন্ধুত্বটা ঠিক এমনই৷ চোখ বন্ধ করে যাঁকে বিশ্বাস করা যায়, যাঁর উপর নির্ভর করা যায়, যে সম্পর্কে একে-অপরের অবাধ যাতায়াত সেটাই তো আসলে বন্ধুত্ব৷

আমি সবসময় কোয়ান্টিটিতে নয়, কোয়ালিটিতে বিশ্বাস করি৷ তাই আমার কোনওদিনই খুব বেশি বন্ধু ছিল না৷ এখনও নেই। তবে যাঁরা আছে, তাঁরা সবসময় আমার খুব ভাল বন্ধু৷ বন্ধু তো আসলে সময় বিশেষে পালটে পালটে যায়…! কিন্তু আমার ক্ষেত্রে এমনটা হয়নি। আমার মাত্র ১০-১৫ জন বন্ধু৷ এদের মধ্যে অনেকেই স্কুল-কলেজের৷ আমাদের বন্ধুত্বে একটা দারুণ সংযম আছে৷ বলা যায় আমাদের বন্ধুত্বে গভীরতা আছে, কিন্তু উদ্দামতা নেই৷

আমার অনেক বন্ধুই বিদেশে থাকে৷ যখন এখানে আসে তখন চুটিয়ে আড্ডা মারি৷ এর বাইরে আলাদা করে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা মারা হয়ে ওঠে না আজকাল৷ এছাড়া ইন্ডাস্ট্রির দু-একজন ভালো বন্ধু তো আছেই৷ যেমন অনিন্দিতা সর্বাধিকারী, কুশল চক্রবর্তী, অরিন্দম শীল৷ এই কয়েকজনের সঙ্গে আমি মন খুলে কথা বলতে পারি৷ তবে খুব বেশি খোলামেলা আমি কোনওদিনই ছিলাম না৷ আমি একটু চাপা স্বভাবের৷ নিজের কষ্ট নিজের মধ্যেই রাখি৷ কাউকে এসব বলে বিরক্ত করতে ইচ্ছে হয় না৷ আর এখন এই বয়সে নতুন করে কেউ বেস্ট ফ্রেন্ড হবে বলে মনে হয় না৷ অবশ্য কোনও দিনই ছিল না৷

এখনকার ভার্চুয়াল ফ্রেন্ডশিপে আমার কোনও বিশ্বাস নেই৷ এই দুনিয়ায় যাঁদের বন্ধুত্ব করতে ভালো লাগে তাঁদের সেটা ব্যক্তিগত ব্যাপার কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার কোনও আগ্রহ নেই৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।