মথুরা: সাংবাদিকতার শুরু মহাভারতের যুগেও৷ অদ্ভুত যুক্তির দৌড়ে এবার ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে পিছনে ফেললেন উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রী৷ মথুরায় হিন্দি সাংবাদিকতার দিন নামে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি বেশ কিছু অদ্ভুত যুক্তি সামনে আনেন৷

রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী দীনেশ শর্মা দাবি করেন, মহাভারতের সময় থেকেই সরাসরি সম্প্রচার করা শুরু হয়৷ তাই সেসময় থেকেই সাংবাদিকতার যাত্রা শুরু। মহাভারতের যুগ থেকেই নাকি সাংবাদিকতা চলে আসছে।

তার মতের সমর্থনে দীনেশ শর্মা বলেন মহাভারতে হস্তিনাপুরে বসে সঞ্জয় যুদ্ধক্ষেত্রের পুঙ্খানুপুঙ্খ বর্ণনা দিতেন৷ সেটা তো এযুগের সরাসরি সম্প্রচারই৷ এখনকার লাইভ টেলিকাস্ট তো এভাবেই হয়৷ ধৃতরাষ্ট্র এখনকার দর্শকের মতো ঘরে বসেই যুদ্ধক্ষেত্রের বিবরণ শুনতে পেতেন৷

এখানেই শেষ নয়৷ নারদ মুনির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তিনি বলেন ‌এযুগের গুগল সার্চের মতই কাজ করতেন নারদ মুনি। বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের সব খবরা খবর তাঁর কাছে পাওয়া যেত। দেবতা বলেই তিনি যেখানে ইচ্ছে সেখানে ঘুরে বেড়াতেন।‌

এর আগে ত্রিপুরার বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবও দাবি করেছিলেন মহাভারতের যুগে ইন্টারনেট ছিল। সেই জোরেই নাকি সঞ্জয় ঘরে বসে যুদ্ধক্ষেত্রের বিবরণ দিতেন রাজা ধৃতরাষ্ট্রকে৷ সেই হাজার হাজার বছর আগেও হিন্দুরা সাংবাদিকতা ও ইন্টারনেটের প্রচলন করেছিল বলে মত বিজেপির দুই নেতার৷