ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: আদালতের রায়ে আপাতত স্থগিত বিজেপির রথ যাত্রা। অন্যদিকে কোচবিহারে বিজেপির রাজ্য সভাপতির গাড়িতে হামলা। একই দিনে এই দুই খাড়ার ঘায়ে ঘায়েল গেরুয়া শিবির। যদিও এই দুই ঘটনা নিয়েই মুখে কুলুপ এঁটেছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব। তবে জেলা ও রাজ্যে, দিলীপ ঘোষ বিরোধী নেতা হামলার ঘটনাকে বিজেপির গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বলেই দাবি করেছেন।

শুক্রবার কোচবিহারে রথযাত্রা উপলক্ষে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব সকলেই সেখানে উপস্থিত। কিন্তু হঠাৎই কোর্টের রায়ে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত হয়ে যায় বিজেপির রথযাত্রা। যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে ডিভিশন বেঞ্চে আপিল করা হয়েছে। পাশাপাশি দিলীপ ঘোষ দাবি করেছেন রথযাত্রা তো হবেই এখন না হয় পরে। তবে এখন অমিত শাহের সভা হবেই। আর এরই পাল্টা হিসেবে রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক কটাক্ষের সুরে জানিয়েছেন, রথযাত্রা নয় বিজেপি এবার শবযাত্রা করুক।

পড়ুন: ‘বাংলায় বিজেপির প্রচারের দায়িত্ব নিয়েছেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে’

শুধু তাই নয় দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলার ঘটনাকে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বিজেপির গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বলেই দাবি করেছেন। একািি করেছেন কোচবিহারের বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ঘোষও।

এদিন ঘটনার পরই প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে বিজেপি নেতৃত্ব। কোচবিহারে এক মিছিল করেন তারা। সেখানে বিজেপির কৈলাশ বিজয়বর্গীয় দাবি করেছেন, পিসি ভাইপো চক্রান্ত করে এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। সেই দাবিকে নস্যাৎ করে এদিন তৃণমূলের জ্যোতিপ্রিয় বাবুর দাবি, বিজেপি এখন সব সময় পিসি ভাইপোর স্বপ্ন দেখছে। নরেন্দ্র মোদিও পিসি ভাইপোর স্বপ্ন দেখছে।