ভারত-পাক অশান্তি গত কয়েকদিনে চরম মাত্রায় পৌঁছেছে। মঙ্গলবার ভারত এয়ার স্ট্রাইক করে পাকিস্তানের জঙ্গি ঘাঁটিতে। এরপর ভারতের সীমান্ত পেরিয়ে প্রবেশের চেষ্টা করে পাকিস্তানের বায়ুসেনা বিমান। ভারতের সেনা ঘাঁটি টার্গেট করেই তারা এসেছিল বলে দাবি ভারতের। অন্যদিকে, পাকিস্তানে বন্দি ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেওয়ার কথা জানিয়ে দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এই অবস্থায় যৌথ সাংবাদিক করে দেশবাসীর উদ্দেশে বার্তা দিল ভারতের তিন বাহিনী।

  • ভারতীয় সীমান্তের কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছে AMRAAM মিসাইলের অংশ, যা ব্যবহার হয় পাক F-16 বিমানে। সেই মিসাইলের অংশ দেখিয়েই প্রমাণ দিল ভারত।
  • পাকিস্তানের মিসাইলের টুকরো প্রমাণ হিসেবে দেখাল বায়ুসেনা।
  • এয়ার স্ট্রাইকে কত জন জঙ্গি মারা গিয়েছে, তা এখনও বলা ঠিক হবে না। তবে পাকিস্তানের জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংসের প্রমাণ আমাদের কাছে আছে: বায়ুসেনা।
  • গত দু’দিনে ৩৫ বার সংঘর্ষি বিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তান। ভারত তার কড়া জবাব দিয়েছে: আর্মি।
  • ভারতীয় নৌসেনা দেশের তিন দিকেই প্রস্তুত আছে। জলসীমায় পাকিস্তানের যে কোনও হামলার চেষ্টায় সঙ্গে সঙ্গে জবাব দেবে নৌবাহিনী: নৌসেনা
  • আমরা যে কোনও পরিস্থিতির জন্য সবসময় তৈরি আছি: আর্মি
  • ২৭ ফেব্রুয়ারি সেনা ঘাঁটিতে আঘাত করার চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান। ভারত প্রস্তুত থাকায় পাকিস্তানের উদ্দেশ্য সফল হয়নি: আর্মি
  • উইং কমান্ডার অভিনন্দনের ফেরার কথা আমরা পেয়েছি। আমরা সেই খবরে খুশি: বায়ুসেনা
  • পাকিস্তান বলছে, কোনও F-16 বিমান ব্যবহার করা হয়নি। সেই দাবি জাসলে মিথ্যা। ভারতের হাতে F-16 ব্যবহার করার প্রমাণ রয়েছে। যে মিসাইল ব্যবহার করা হয়েছে, তা কেবল F-16 এই ব্যবহার করা সম্ভব: বায়ুসেনা
  • একাধিক মিথ্যা দাবি করছে পাকিস্তান। পাকিস্তান বলছে তারা ফাঁকা জায়গায় আঘাত করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু পাকিস্তান আসলে পাকিস্তান সেনাঘাঁটিকে টার্গেট করেছিল: বায়ুসেনা
  • ভারতের ঘাঁটিতে কোনও ক্ষতি পারেনি পাক বিমান। মিগ-২১ গুলি করে নামায় পাক বিমানকে। বিমানটি গিয়ে পড়ে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। ভারত একটি মিগ বিমান হারায়। পাইলট বেরিয়ে গেলেও তাঁর প্যারাস্যুট গিয়ে পড়ে অধিকৃত কাশ্মীরে: বায়ুসেনা।
  • বুধবার সকালে ভারত দেখতে পায় পাকিস্তান থেকে যুদ্ধবিমান এগিয়ে আসছে। রাজৌরি সেক্টরে ঢুকে পড়ে সেটি। মিগ-২১, সুখোই-৩০ তাড়া করতে যায় পাক বিমানকে: বায়ুসেনা।
  • বক্তব্য রাখছেন বায়ুসেনার এয়ার ভাইস মার্শাল
  • স্থলসেনার তরফ থেকে রয়েছেন মেজর জেনারেল সুরিন্দর সিং মহল। নৌবাহিনীর তরফ থেকে রয়েছেন দলবীর সিং গুজরাল, বায়ুসেনার তরফ থেকে রয়েছেন এয়ার ভাইস মার্শাল আরজিকে কাপুর।
  • যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে ভারতীয় সেনা, নৌবাহিনী ও বায়ুসেনা।

ইতিমধ্যেই ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনের দেশের ফেরার খবর এসেছে। শুক্রবারই মুক্তি দেওয়া হবে ভারতীয় পাইলটকে। বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের সংসদে দাঁড়িয়ে এমনটাই বলেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

শান্তির বার্তা দিয়েই ভারতে ফেরানো হবে পাইলটকে। পাকিস্তানের সংসদে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমনটাই বললেন পাক প্রধানমন্ত্রী।