স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা সংক্রমণের আবহের মধ্যেই শুক্রবার প্রকাশিত হল রাজ্যের জয়েন্টের ফলাফল।প্রথম দশের মেধাতালিকায় জেলার সংখ্যাই বেশি। প্রথম হয়েছেন উত্তরবঙ্গের রায়গঞ্জের সৌরদীপ দাস। রামকৃষ্ণমিশন দেওঘরের ছাত্র। দ্বিতীয় হয়েছেন দুর্গাপুরের শুভম দে। দুর্গাপুরের ডিএভি মডেল স্কুলের ছাত্র। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন কলকাতার শ্রীমন্তী দে। ডিপিএস রুবি পার্কের ছাত্রী। চতুর্থ হয়েছেন সাঁতরাগাছির উৎসব বসু।

এবার জয়েন্ট উত্তীর্ণদের অনলাইনে কাউন্সিলিং নেওয়া হবে। তার জন্য তাঁদের কোনও রিপোর্টিং সেন্টারে যেতে হবে না। কলেজ শুরু হলে শুধু অরিজিনাল রেজাল্ট ফেরিফাই করলেই হবে। রেজিস্ট্রেশন ফি দিতে হবে না রাজ্যে জয়েন্টে যারা উত্তীর্ণ হয়েছে।

রেজাল্ট প্রকাশিত হওয়ার পর দেখা গেল, যাঁরা পরীক্ষা দিয়েছিলেন, এমন পড়ুয়াদের ৯৯ শতাংশ র‌্যাঙ্ক পেয়েছেন। এবছর আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ৮৮,৮০০ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় বসেছিলেন ৭৩,১১৯ জন।
এঁদের মধ্যে ছাত্রের সংখ্যা রয়েছে ৫৫,‌১৫৪ জন আর ছাত্রীর সংখ্যা রয়েছে ১৭,১৪৪ জন।

গত ২ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। প্রায় ছ’‌মাসের মাথায় জয়েন্টের ফল প্রকাশিত হল। এবারের ফলাফলে দেখা গিয়েছে, রাজ্যের পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫১,২৩৫ জন র‌্যাঙ্ক পেয়েছেন, বাইরের রাজ্যের ২১,০৬৩ জন র‌্যাঙ্ক পেয়েছেন।

এবার জয়েন্ট পরীক্ষায় রাজ্যের উচ্চমাধ্যমিক বোর্ডের ৩৬,৪৮৫ জন পড়ুয়া সফল হয়েছেন। এছাড়া সিবিএসই বোর্ডের ২২,২৭০ জন পড়ুয়া এবারে জয়েন্টের পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন করেছেন। সাফল্য অর্জন করেছেন আইএসই বোর্ডের ২২২৬ জন পড়ুয়া ও অন্যান্য বোর্ডের ১১,৩১৭ জন পড়ুয়া। সব মিলিয়ে সাফল্যের হার অনেকটাই উপরের দিকে।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক মেধাতালিকা

প্রথম: সৌরদীপ দাস। রায়গঞ্জের বাসিন্দা। দেওঘরের রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যাপীঠের ছাত্র সে।
দ্বিতীয়: শুভম ঘোষ। ডিএভি মডেল স্কুলের ছাত্র।
তৃতীয়: ঢাকুরিয়ার বাসিন্দা শ্রীমন্তী দে। সে ডিপিএস রুবি পার্কের পড়ুয়া।
চতুর্থ: উৎসব বসু। সাউথ পয়েন্ট হাই স্কুলের ছাত্র।
পঞ্চম: পূর্ণেন্দু সেন। দুর্গাপুর ডিএভি মডেল স্কুলের পড়ুয়া।
ষষ্ঠ: অঙ্কুর ভৌমিক। দিল্লি পাবলিক স্কুল, রুবি পার্কের পড়ুয়া।
সপ্তম: সোহম সমাদ্দার। গার্ডেন হাইস্কুলের ছাত্র।
অষ্টম: অরিত্র মিত্র। বেহালা আর্য বিদ্যামন্দিরের ছাত্র।
নবম: গিরিক মাসকারা। সল্টলেকের সেন্ট জোনস স্কুলের পড়ুয়া।
দশম: অর্ক দত্ত। লালবাহাদুর শাস্ত্রী সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলের পড়ুয়া।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা