লন্ডন: রাজস্থান রয়্যালেসর জন্য খারাপ খবর৷ বেন স্টোকসের পর ২০২১ আইপিএল থেকে ছিটকে গেলেন জোফরা আর্চার৷ শুক্রবার জানিয়ে দিল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)৷

ইসিবি-র তরফে মিডিয়া রিলিজে বলা হয়েছে, ‘আর্চার আগামী সপ্তাহ থেকে ট্রেনিং শুরু করবে৷ সাক্সেস থেকে ফুল ট্রেনি শুরু করবে৷ আশা করা যায়, আগামী দু’ সপ্তাহের মধ্যে ক্রিকেট ফিরতে পারবে আর্চার৷ তবে ওর যদি কোনও যন্ত্রণা না-হয়৷ ইসিবি ঠিক করে দিয়েছে, কোন ম্যাচ খেলবে আর্চার৷’ অর্থাৎ চতুর্দশ আইপিএলে খেলা হচ্ছে না আর্চারের৷

সুতরাং বেন স্টোকসের পর আর্চারকেও পাচ্ছে না রাজস্থান৷ মরুশুমের প্রথম আঙুলে চোট পাওয়ার পর আইপিএল থেকে ছিটকে যান স্টোকস৷ ইংরেজ এই অল-রাউন্ডারকে ছাড়া পরের তিনটি ম্যাচের মধ্যে দু’টিতে হেরেছে রয়্যালস৷ এবার আর্চারকে পাওয়ার আশাও শেষ হয়ে সঞ্জু স্যামসনদের৷ ফলে দুই অল-রাউন্ডারকে না-পাওয়াটা রাজস্থান রয়্যালসের জন্য দারুণ ক্ষতি৷

আঙুলে অস্ত্রোপচারের কারণে ২০২১ আইপিএলের ফার্স্ট-হাফে খেলার সম্ভাবনা ছিল না রাজস্থান রয়্যালস এই অল-রাউন্ডারের৷ আঙুলের চোটের কারণে ভারতের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি৷ তড়িঘড়ি দেশে ফিরে ডানহাতের আঙুলে অস্ত্রোপচার হয় আর্চারের৷ তারপর ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের তরফে আর্চারের চোট আপটেড দিয়ে জানানো হয়েছিল, দু’সপ্তাহ রি-হ্যাবে থাকার পর মাঠে ফিরতে পারবে এই অল-রাউন্ডার৷ তারপর ট্রেনিংয়ে ফিরবেন৷ আঙুলের অস্ত্রোপচারের পর ইসিবি এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, ‘আর্চারের ডানহাতের মাঝের আঙুলে অস্ত্রোপচারের ফলে fragment of glass বের করা হয়েছে৷ আগামী দু’ সপ্তাহ ওকে রি-হ্যাবে থাকতে হবে৷ ট্রেনিংয়ে ফেরার আগে ফিজিওর সঙ্গে আলোচনা করবে ও৷’

চলতি বছর শুরুতে বাড়ি পরিষ্কার করতে গিয়ে আর্চারের আঙুল কেটে গিয়েছিল৷ এর কিছুদিনের মধ্যেই ভারত সফরে টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতির জন্য আসে৷ সফরে আর্চারের চোট নিয়ে ইসিবি মেডিক্যাল টিম নজর রেখেছিল৷ এছাড়া আর্চারের elbow niggle ছিল৷ পরে ভারতের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে চোট পেয়ে ওয়ান ডে সিরিজ থেকে ছিটকে যান এই ইংল্যান্ড অল-রাউন্ডার৷ কিন্তু প্রথমে মনে করা হয়েছিল, আইপিএলের সেকন্ড হাফে খেলতে পারবেন আর্চার৷ শুক্রবার সেই সম্ভাবনায় জল ঢেলে দিল ইসিবি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.