লিডস: লক্ষ্যমাত্রা ৩৫৯। চতুর্থ ইনিংসে ইংল্যান্ড এই রান তাড়া করে জয় পেলে তা হবে হেডিংলি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়। সিরিজে সমতা ফেরানোর লক্ষ্য নিয়ে তৃতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষে ইংল্যান্ডের রান ৩ উইকেটে ১৫৬। দিনের শেষে জো রুট অপরাজিত ৭৫ রানে। অর্থাৎ রুটের ব্যাটেই লড়াই জারি ইংল্যান্ডের।

৩৫৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে ব্যাট করতে নেমে ১৫ রানে ২ উইকেট খুঁইয়ে প্রথম ইনিংসের ‘ভূত’ তাড়া করতে থাকে ইংল্যান্ডকে। সেখান থেকে তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক রুট ও জো ড্যানলির ১২৬ রানের পার্টনারশিপ ম্যাচে ফেরায় ইংল্যান্ডকে। অর্ধশতরান পূর্ণ করে ড্যানলি আউট হলেও দিনের শেষে অপরাজিত অর্ধশতরানে দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন অধিনায়ক। অ্যাশেজের গত দু’টি ইনিংসে শূন্য রানে ফেরার পর লিডসে চতুর্থ ইনিংসে রুটের এই ইনিংস যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ, রুটের ব্যাটেই তৃতীয় দিনের শেষে ট্রফি নিজেদের দখলের নেওয়ার ন্যূনতম আশাটুকু বাঁচিয়ে রেখেছে ইংল্যান্ড।

রান তাড়া করতে নেমে শনিবার ৭ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন রোরি বার্নস। চলতি অ্যাশেজে আরও একটি ব্যর্থ ইনিংসে জেসন রয়ের সংগ্রহ ৮ রান। এরপর তৃতীয় উইকেট জুটিতে রুট-ড্যানলির ১২৬ রানের অনবদ্য পার্টনারশিপ সহজ জয়ের স্বপ্ন থেকে অনেকটা দূরে ঠেলে দেয় অজিদের। ৮টি বাউন্ডারির সাহায্যে অর্ধশতরান পূর্ণ করে হ্যাজেলউডের শিকার হন ড্যানলি। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে হ্যাজেলউডের দ্বিতীয় শিকার এটি। ৭টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৭৫ রানে অপরাজিত দলনায়ক রুট। ২ রানে অপরাজিত থেকে চতুর্থদিন শুরুতে অধিনায়কের সঙ্গে ব্যাটিংয়ে নামবেন ডেপুটি বেন স্টোকস।

এর আগে তৃতীয়দিন সকালে ৬ উইকেটে ১৭১ রান নিয়ে খেলা শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। আর্চারের ডেলিভারিতে স্লিপে দাঁড়িয়ে টেস্ট ক্রিকেটের শততম ক্যাচ নিয়ে প্যাটিনসনকে ফেরান রুট। স্টোকসের ডেলিভারিতে বার্নসের তালুবন্দি হল কামিন্স। মার্নাস ল্যাবুশেনের দুরন্ত ৮০ রানের ইনিংস থামে রান আউটে। লায়নকে বোল্ড অজি ইনিংসের পরিসমাপ্তি ঘটান আর্চার। প্রথম ইনিংসে ১০৭ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ২৪৬ রানে শেষ হয় অস্ট্রেলিয়া ইনিংস।