কলকাতা: জাতীয় দলের প্রতিশ্রুতিমান দক্ষিণী স্ট্রাইকার জবি জাস্টিনের সঙ্গে চুক্তি বর্ধিত করে নিল এটিকে-মোহনবাগান। ২০১৮-১৯ মরশুমে ইস্টবেঙ্গলের জার্সি গায়ে দুরন্ত পারফরম্যান্সের কারণে গত মরশুমের শুরুতে আইএসএলে এটিকে’র সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন এই মালায়ালি স্ট্রাইকার।

যদিও এটিকে’র জার্সি গায়ে খুব বেশি ম্যাচে খেলার সুযোগ পাননি। তবে জাতীয় দলের জার্সিতে তিন ম্যাচ খেলা জবিতে যে ম্যানেজমেন্ট আস্থা হারায়নি সেটা এই চুক্তি বর্ধিত হওয়ার ঘটনাতেই পরিষ্কার। উল্লেখ্য, প্রথম মরশুমে এটিকে’র জার্সি গায়ে আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হলেও মাত্র ৫টি ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ পেয়েছিলেন জবি। পাঁচ ম্যাচে একটি গোল এসেছিল মালায়ালি স্ট্রাইকারের পা থেকে।

এর আগে ২০১৮-১৯ মরশুমে ইস্টবেঙ্গলের জার্সি গায়ে আই লিগে সর্বোচ্চ ভারতীয় গোলস্কোরার হয়েছিলেন জবি। লাল-হলুদ জার্সিতে কেরল স্ট্রাইকারের চমকপ্রদ পারফরম্যান্সই তাঁর প্রতি উৎসাহী করে তুলেছিল এটিকে’কে। জবি আগেই জানিয়েছিলেন তিনি অন্য কোনও ক্লাব নয় বরং এটিকে-মোহনবাগানের হয়েই খেলতে চান তিনি। তাঁকে ধরে রাখার ব্যাপারে উৎসাহী ছিল ক্লাবও।

সবমিলিয়ে আগামী দু’মরশুমের জন্য এটিকে-মোহনবাগানের সঙ্গে চুক্তি পুনর্নবীকরন হল জবির। এটিকে-মোহনবাগানের হয়ে আরও দু’মরশুম খেলতে পারবেন জেনে খুশি জবি।

দক্ষিণী স্ট্রাইকার জানিয়েছেন, ‘কলকাতা ফুটবলের ইতিহাসে একটা নতুন অধ্যায়ের শুভ সূচনা হতে যাচ্ছে। কলকাতার দু’টো চ্যাম্পিয়ন ক্লাব সংযুক্ত হয়ে নতুন পথ চলা শুরু করছে। আর আমি প্রচন্ড উৎসাহী এর অংশীদার হওয়ার জন্য। মরশুম শুরু হওয়ার জন্য আর অপেক্ষা করতে পারছি না।’

উল্লেখ্য, ২০১৯-২০ আইএসএল খেতাব জয়ের পিছনে অন্যতম প্রধান কান্ডারি রয় কৃষ্ণার সঙ্গেও ইতিমধ্যে চুক্তি পুনর্নবীকরন করেছে এটিকে-মোহনবাগান। শুধু ফিজি স্ট্রাইকার নন, খেতাব জয়ের আরও এক কান্ডারি তথা মোহনবাগান প্রাক্তনী প্রবীর দাসও চুক্তি বাড়িয়ে নিয়েছেন এটিকে-মোহনবাগানের সঙ্গে।

২০২৩ অবধি চুক্তি বর্ধিত করে প্রবীর ভিডিওবার্তায় জানিয়েছিলেন, ‘অনুরাগীদের এবং এটিকে-মোহনবাগান ম্যানেজমেন্টকে অনেক ধন্যবাদ। আমি এই ক্লাবে আরও তিন বছরের জন্য যুক্ত হলাম। আমি ভীষণই উত্তেজিত। আমার পুরনো ক্লাব এবং নতুন ক্লাব এখন এক হয়ে গিয়েছে। নতুন ক্লাবের জার্সি পরতে আমি মুখিয়ে রয়েছি। আমি আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব। তোমাদের সকলকে খুব ভালোবাসি, শীঘ্রই দেখা হচ্ছে।’

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা