মুম্বই: গ্রাহকদের কথা ভেবে জিওর তরফে আনা হল এবার এক নতুন ভিডিও কনফারেন্স অ্যাপ জিও মিট। লক ডাউন পরিস্থিতিতে সকলেই ক্রমে নির্ভরশীল হয়ে পড়েছিল জুম অ্যাপের উপরে। তবে নিরাপত্তার বিষয়ের কারণে কার্যত এই অ্যাপ ব্যবহার বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। আর সেই কারণে সাধারণের কথা ভেবে জিওর তরফে নিয়ে আসা হয়েছে এই ভিডিও কনফারেন্স অ্যাপ। এর ফলে সাধারণ মানুষের যথেষ্ট সুবিধা হবে।

জানা গিয়েছে, এই অ্যাপে একসঙ্গে ১০০ জন মানুষ যোগ দিতে পারবেন। জিওর হাত ধরে ডিজিটাল দুনিয়াতে ফের নিজেকে প্রমাণ করল ভারত। আর এই প্রথম জিও নিয়ে এল দেশীয় ভিডিও কনফারেন্স অ্যাপ। এই অ্যাপের সাহায্যে গুরুত্বপূর্ণ মিটিং সহজেই করা যাবে। এছাড়া সহজেই যে কেউ এই অ্যাপের মাধ্যমে যোগ দিতে পারবেন। কোন অসুবিধার মধ্যে পরতে হবে না ব্যবহারকারীদের। বিনামূল্যে এই পরিষেবা ব্যবহার করতে পারবে মানুষজন। যে কোন জায়গা থেকেই এই অ্যাপের মাধ্যমে মানুষ যে কোন কনফারেন্সে যোগ দিতে পারবেন। পাশপাশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করতেও পারবেন।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সাধারণের কথা ভেবে বেশ কিছু প্রসিএবা নিয়ে এসেছিল জিও। যার ফলে যথেষ্ট সুবিধা পেয়েছি সাধারণ মানুষজন। পাশপাশি বেশ কিছু বিদেশি সংস্থার সঙ্গেও গাঁটছড়া বেধেছিল রিলায়েন্স জিও। যার ফলে মনে কড়া হচ্ছে ডিজিটাল দুনিয়াতে জিওর তরফে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। তবে এবারে সম্পূর্ণ দেশীয় সংস্থা রিলায়েন্স জিওর তরফে এই ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ আসাতে যথেষ্ট সুবিধা হবে মানুষজনের। আর এই অ্যাপের ব্যবহার খুব একটা কঠিন না হওয়াতে যে কেউ এটি ব্যবহার করতে পারবেন। ক্রমেই ডিজিটাল দুনিয়ার দিকে এগিয়ে চলেছে ভারত। আর সেদিকে এই পদক্ষেপ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ