নয়াদিল্লি: গ্রাহকদের কথা ভেবে এবারে এক নয়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে রিওয়ায়েন্স জিও। জানানো হয়েছে স্মার্ট ফোনের বাজার দখল করার জন্য জিও ৫ হাজারের কমে তাদের নয়া ৫জি স্মার্ট ফোন বাজারে আনার পরিকল্পনা করছে। ইতিমধ্যে ভারতের নেটওয়ার্কের বাজারে অত্যন্ত জনপ্রিয় জিও। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও তারা নিয়ে এসেছে একের পর এক বিদেশী বিনিয়োগ। তার মধ্যে এবারে এই বিষয়টি সামনে আসাতে অবাক হয়েছেন সকলে।

অল্প সময়ের মধ্যে বাজারে এসে যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে জিও। এছাড়া গ্রাহকদের আকর্ষণের জন্য তারা নিয়ে এসেছেন একের পর এক প্ল্যান। যা সুবিধা দিয়েছে সাধারণকে। তবে জানা জানা গিয়েছে তারা তাদের ফোন মাত্র ২৫০০-৩০০০ এর মধ্যে গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করতে পারে।জানা গিয়েছে সংস্থার তরফে প্রায় ২০-৩০ কোটি মোবাইল ব্যবহারকারী যারা এখনও ২ জি ব্যবহার করে তাদের টার্গেট করা হচ্ছে।

যাতে তারা ৫ জি ব্যবহার করতে পারেন। তারপরে ধীরে ধীরে বাজারে আসবে তাদের এই ফোন। সংস্থার এক আধিকারিকের তরফে জানা গিয়েছে জিও ৫ হাজারের মধ্যে গ্রাহকদের কাছে পৌছতে চাইছে নিজেদের ডিভাইস গুলি। মনে করা হচ্ছে তারা ২৫০০-৩০০০ এর মধ্যে তাদের ডিভাইসের দাম রাখবে। জতে সকলেই ব্যবহার করতে পারে।

এই মুহূর্তে ভারতের বাজারে ৫জি ফোনের দাম শুরু হচ্ছে ২৭ হাজা থেকে। ইয়বে জিওর ওই পদক্ষেপ সফল হলে দাম যে অনেকটাই নেমে আসবে তা নিশ্চিত ভাবে বলাই যায়। জিও প্রথম কোম্পানি যারা ভারতের বাজারে নিয়ে এসেছিল ৪ জি ফোন। পরবতীকালে তা তুলে নেওয়া হয়েছিল।

তবে ভারতকে ডিজিটাল ভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদ্র তরফে যে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল তা জানা গিয়েছিল জিওর বৈঠকে। আর সেই কারণেই মনে করা হচ্ছে এত কম দামে জিও আনতে চলেছে তাদের নয়া ফোন। ফলে ভারতের বাজারে জিও ফের তাদের ফোন আনতে পারবে। ার তা বাকিদের প্রতিযোগিতার মধ্যে ফেলতে পারবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।