নয়াদিল্লি : স্বনির্ভর ভারতের লক্ষ্যে আরও এক ধাপ। মাত্র চার হাজার টাকায় ৫জি ফোন নিয়ে আসছে রিলায়েন্স জিও। রিলায়েন্সের বার্ষিক সাধারণ সভায় এমনই ঘোষণা করেছেন মুকেশ অম্বানি। তিনি বলেন অত্যন্ত কম দামে গুগলের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে দারুণ ফোন বাজারে আনতে চলেছে জিও।

২০২১ সালের শুরুর দিকেই এই ফোন বাজারে আসবে। রিলায়েন্স জিওর এই সস্তা অ্যান্ড্রয়েডগুলি ৪জি ও ৫জি ফোন হবে, যা শুধু ভারতের বাজারেই বিক্রি হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে ফোনটির বিষয়ে বিস্তারিত এখনও গুগল বা জিওর তরফে কিছু জানা যায়নি।

ব্লুমবার্গে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন জানাচ্ছে, ২০০ মিলিয়ন প্রাথমিক স্তরের স্মার্টফোন তৈরি করতে চাইছে রিলায়েন্স। আগামী দু বছরের জন্য এই লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। রিলায়েন্সের তৈরি নতুন ৫জি ফোনটির নাম রিলায়েন্স অরবিক ফোন RC545L (Reliance Orbic RC545L)। গুগল প্লে কনসোলে ইতিমধ্যেই জিও অরবিক ফোনটিকে লিস্ট করা হয়েছে।

ফোনের ফিচার্স

এই ফোনে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন QM215 প্রসেসর দেওয়া হবে যা অ্যান্ড্রয়েড গো স্মার্টফোনের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। প্রসেসরের ক্ষেত্রে এই ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড গো স্মার্ট ফোনের জন্য ডিজাইন করার ফলে ১ জিবির বেশি র‍্যাম এতে পাওয়া যাবে না। ডিসপ্লে হবে HD+ রেজোলিউশনের। স্ক্রিন হবে ৭২০x১৪৪০ পিক্সেল রেজোলিউশনের। এই ফোনটি ভারতে ২০২০ সালের ডিসেম্বরে বা ২০২১ সালের প্রথম দিকে পাওয়া যেতে পারে।

এদিকে, জিওর তরফে এবারে লঞ্চ করা হয়েছে নতুন তিনটি ইন ফ্লাইট প্ল্যান। এই সকল প্ল্যানের ভ্যালিডিটি এক দিনের এবং এগুলি ব্যবহার করা যাবে বিমান যাত্রার সময়ে।জিওর ওয়েবসাইটের তরফে জানা গিয়েছে এই প্ল্যানের সুবিধা পেতে পারবেন সকল গ্রাহকেরাই। পাশপাশি এও জানানো হয়েছে নির্ধারিত কিছু এয়ার লাইনের ক্ষেত্রে পাওয়া যাবে ভয়েস কলের সুবিধাও।

এই সুবিধা প্রিপেড এবং পোস্টপেড গ্রাহকেরা পেতে পারবেন। পাশপাশি গ্রাহকদের জন্য তাদের তরফে আনা হয়েছে ওয়াই ফাই কলিং এর পরিষেবা। ৪৯৯ টাকার এই প্ল্যানে রয়েছে ১০০ মিনিট আউটগোয়িং কলের সঙ্গে একাধিক সুবিধা।

রয়েছে ২৫০ এম বি ডেটা ব্যবহারের সুযোগ। তবে এই প্ল্যানে ইন কামিং কলের সুবিধা পেতে পারবেন না গ্রাহকেরা। এছাড়া রয়েছে ৬৯৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ১০০ মিনিট আউটগোয়িং কলের সঙ্গে ৫০০ এম বি ডেটা ব্যবহারের সুবিধাও। এছাড়া রয়েছে ৯৯৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ১০০ মিনিট আউটগোয়িং কলের সুবিধা। অন্যদিকে রয়েছে ১ জিবি ডেটা ব্যবহারের সুযোগ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।