রাঁচি: ঘুষ নিতে একেবারে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেলেন ঝাড়খন্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রামচন্দ্র চন্দ্রবংশী৷ আর তার এই টাকা নেওয়ার ভিডিও শুক্রবার থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাফেরা করছে বলে জানা যাচ্ছে৷ সূত্রের খবর, এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, গড়ওয়ার আদর পঞ্চায়েতে একটি নির্মাণ কাজের জন্য তিনি টাকা নিচ্ছেন৷

এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই, চন্দ্রবংশীর বিপক্ষরা তাকে নিশানা করেছে৷ এদিকে এক সাংবাদিক সম্মেলনে চন্দ্রবংশী দাবি করেছেন, তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার৷ তিনি বলেন, গত ১১ জুলাই একটি গ্রামে বেশ কিছু প্রজেক্টের উদ্বোধনে গিয়েছিলাম৷ সেখানে গ্রামবাসীরা একটি প্ল্যাটফর্ম নির্মাণ করিয়ে দেওয়ার আবেদন জানায়৷ আমি ১৫,০০০ টাকা নিয়ে তা এক গ্রামবাসীকে দিই এবং নিশ্চিত করি যে এই প্ল্যাটফর্ম নির্মাণের জন্য ফান্ড তৈরি করা হবে৷

তিনি আরও বলেন, গ্রামবাসীরা জানায় তাদের ৫০,০০০ টাকার প্রয়োজন এবং তাই তাদের আশ্বস্ত করে বলি বাকি ৩৫,০০০ টাকা আমরা ডোনেশনের মাধ্যমে তুলব৷ কেউ এই বিষয়টির একটি ভিডিও করে নেয় এবং তা ছড়িয়ে দেয়, যার থেকে ঘুষ নেওয়ার বিষয়টি মনে হতে পারে অনেকের৷ কিন্তু কেউ সবার সামনে এভাবে কী ঘুষ নেয়, প্রশ্ন তুলেছেন খোদ স্বাস্থ্যমন্ত্রী৷

পড়ুন: যোগীর রাজ্যে মিলল ৩৫টি গরুর মৃতদেহ

তাঁর দাবি, একজন বহিষ্কৃত বিজেপি সদস্য এই ভিডিওর পিছনে রয়েছে৷ সতীশ যাদবকে বিজেপি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে৷ সেইই আমার ভাবমূর্তি খারাপ করার জন্য এই কাজ করে থাকতে পারে৷ এই টাকা নেওয়ার সময় সেখানে প্রায় ২,০০০ মানুষ উপস্থিত ছিলেন বলে তাঁর দাবি৷