ঝাড়গ্রাম: জঙ্গলমহলের এই জেলায় লোকসভা নির্বাচনে ভাল ফল করে বিজেপি৷ কিন্তু গেরুয়া শিবিরের সেই শক্তি ধীরে ধীরে ক্ষয় হচ্ছে৷ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে নাম লেখালেন কয়েক হাজার কর্মী সমর্থক৷ যদিও বিজেপি একে গুরুত্ব দিতে নারাজ৷

জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের দাবি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যখন রাজ্যে উপস্থিত, সেই সময়ই ঝাড়গ্রামে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছে হাজার হাজার কর্মী সমর্থক৷ ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূলের জেলা সভাপতি বীরবাহা সরেন টুডু, তৃণমূলে আসা বিজেপির নেতা-কর্মীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন৷ সম্প্রতি ঝাড়গ্রাম শহরের ডিএম হলে তৃণমূলে নাম লেখালেন বিজেপির চার হাজার ছ’শো কর্মী সমর্থক৷

জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি বীরবাহা সরেনের দাবি,যারা তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন তারা বেশির ভাগ এসেছে বিজেপি থেকে। যাদের মধ্যে রয়েছেন শ্রমিক নেতাও৷ এছাড়া যারা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন তাদের মধ্যে রয়েছেন স্থানীয় অসংগঠিত শ্রমিক সংগঠনের জেলা সহ সভাপতি সুদীপ ব্যানার্জি। এমনকি স্থানীয় বিজেপির আইটি সেলের দায়িত্বে থাকা সুব্রত নন্দীও তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন৷ ঝাড়গ্রাম, জামবনি সহ জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা বিজেপির নেতা কর্মীরা তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন৷

গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় বিজেপি যে সব জেলাতে ভালো ফল করে তার মধ্যে অন্যতম হল ঝাড়গ্রাম৷ এই জেলায় গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতির অনেকগুলি আসনে বিজেপি জিতেছে৷ পাশাপাশি তারা জেলা পরিষদের তিনটি আসনে জয়লাভ করে।বিজেপির কাছে পরাজিত হয়েছে জেলা পরিষদের সভাধিপতিও। পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর একই ধারা অব্যাহত রেখে লোকসভায়ও ভাল ফল করে বিজেপি৷ শুধু তাই নয়, তৃণমূল কংগ্রেসের হাত থেকে এই লোকসভা আসন ছিনিয়ে নেয় গেরুয়া শিবির৷

লোকসভা ভোটে জঙ্গলমহলের এই জেলাতে অনেকটা ব্যাক ফুটে চলে যায় তৃণমূল কংগ্রেস। দিন কয়েক আগে ঝাড়গ্রাম শহরে বড় মিছিল বের করে বিজেপি। তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিল পদ্ম শিবির৷ তারপরই এই এলাকায় বড় ধাক্কা খেল বিজেপি৷

বিজেপির দাবি বীরবাহা সোরেনের দাবি বিজেপি থেকে আরও অনেকেই তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে আগ্রহী। তাদের ভুল বুঝিয়ে বিজেপিতে নিয়ে যাওয়া হয়। এখন তারা নিজেদের ভুল বুঝতে পেরেছেন। যদিও জেলা বিজেপির সভাপতি সুখময় শতপথি দাবি করেছেন যে সুব্রতকে আগেই দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও