ওটাওয়া: ডাকাতদের পাল্লায় পড়লে প্রথম কোন চিন্তা মাথায় আসবে আপনার? হয় পুলিশকে ফোন করার কথা মনে হবে নয়তো নিজের জীবন বাঁচাতে দৌড় লাগাবেন অথবা ঘরের মধ্যে দরজা বন্ধ করে বসে থাকবেন৷ কিন্তু ডাকাতদের সঙ্গে লড়াই করার সাহস হয়তো দেখাবেন না৷

সেই সাহসটাই দেখালেন গয়নার দোকানের কর্মচারিরা৷ খালি হাতে নয়৷ একেবারে তরোয়াল নিয়ে ডাকাতদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান তাঁরা৷ অনেক চেষ্টা করেও দোকানে ঢুকতে পারেনি ডাকাতরা৷ উল্টে কর্মচারিদের রণংদেহি মূর্তি দেখে তারা দেয় ছুট৷ কর্মচারিদের সাহসিকতা ও বীরত্বের প্রশংসায় মুখর এখন সোশ্যাল মিডিয়া৷

কানাডার একটি গয়নার দোকান অশোক জুয়েলার্সের ঘটনা৷ সেই দোকানে আচমকা হানা দেয় ডাকাত দল৷ হাতে বন্দুক নিয়ে ভয় দেখায় কর্মচারিদের৷ দোকানে তখন তিন কর্মচারি৷ কিন্তু ডাকাতদলের সামনে দমে যাওয়ার পাত্র যে তারা নন তা বুঝিয়ে দেন কিছুক্ষণের মধ্যে৷ ডাকাতদের বন্দুকের মোকাবিলায় তারা তরোয়াল হাতে ‘যুদ্ধে’ নেমে পড়েন৷

চার ডাকাত আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দোকানের ভেতক ঢোকার৷ কিন্তু তিন কর্মচারির সামনে তারা বারবার লড়াইয়ে পিছিয়ে পড়তে থাকে৷ জানলার কাঁচ ভেঙেও দোকানে ঢোকার চেষ্টা চালায়৷ সেটাও ভেস্তে দেয় কর্মচারিরা৷ শেষমেশ হতাশ হয়ে ডাকাতদল সেখান থেকে চলে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে বলে মনে করে৷ এবং সেটাই তারা করে৷

গোটা ঘটনাটি দোকানের সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়ে৷ সেই ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই কর্মচারিদের সাহসিকতায় মুখরিত হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া৷