মুম্বই: ঋণের দায়ে জর্জরিত জেট এয়ারওয়েজে এবার আপাতত সব উড়ানই বাতিল করতে চলেছে৷ এমনই প্রতিবেদন বের হয়েছে একটি সর্ব ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে৷ এই বিমান সংস্থা ঘাড়ে এখন ৮০০০ কোটি টাকা ঋণের বোঝা রয়েছে এবং বর্তমানে চালাচ্ছে ১০টি এয়ারক্রাফট ৷

গত মাসেই জেট এয়ারওয়েজ-এর প্রতিষ্ঠাতা নরেশ গোয়েল এবং তাঁর স্ত্রী অনিতা গোয়েলকে এই বিমান সংস্থা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় এবং তাদের এই বিমান সংস্থা কেনার ব্যাপারে নিলামে কোনও ভাবেই অংশ নিতে পারবে না৷

বর্তমানে এই আর্থিক বেহাল দশায় থাকা এই বিমান সংস্থাটি নতুন অর্থ ঢোকার জন্য অপেক্ষা করে আছেন৷ স্টেট ব্যাংকের নেতৃত্বাধীন দেশিয় ঋণদাতা সংস্থাগুলি নিয়ে গঠিত কনসর্টিয়াম হয়ে জেট এয়ারওয়েজ বিক্রির কাজ করছে এসবিআই ক্যাপিটাল মার্কেটস৷

এদিকে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইএ সুনীল মেহেতা ইতিমধ্যে সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানিয়েছেন, ঋণদাতারা দায়বদ্ধ পুনরুজ্জীবনের পরিকল্পনার বাস্তবায়িত করার জন্য ৷ তিনি জানান, স্টেট ব্যাংক, এসবিআই ক্যাপস এই বিষয়ে পরিকল্পনার কাজ শুরু করেছে ৷ তবে এই পুনরুজ্জীবনের পরিকল্পনাটি এখনও চূড়ান্ত হয়নি৷

এই বিমান সংস্থা ইতিমধ্যেই ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত আন্তর্জাতিক উড়ান বাতিল করেছে৷ বিমান চালানোর জন্য তেল কেনার মতো সংস্থার হাতে পর্যাপ্ত টাকা নেই৷