ফাইল ছবি

মুম্বই: আত্মহত্যা করলেন জেট এয়ারওয়েজের এক সিনিয়র টেকনিশিয়ান৷ শৈলেশ সিং (৪৫) নামে মহারাষ্ট্রের পালঘরের বাসিন্দা জেট এয়ারওয়েজের ওই টেকনিশিয়ান দীর্ঘদিন ধরেই ক্যান্সারে ভুগছিলেন৷ জানা গিয়েছিলেন, তিনি ভুগছিলেন হতাশাতেও৷ দীর্ঘদিন ধরেই অর্থনৈতিক টানাপোড়েন চলছিল৷ তার ওপর কেমোথেরাপির খরচ বহন করা তার পক্ষে কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছিল৷

পুলিশ আধিকারিকদের মতে, হতাশার কারণেই তিনি এই পথ বেছে নিয়েছেন৷ জেট এয়ারওয়েজ আর্থিক অনটন দীর্গদিন ধরেই চলছে৷ এই ধরণের মর্মান্তিক ঘটনা এই প্রথম ঘটল৷ মৃতের ছেলে ওই একই এয়ারলাইনের অপারেশনস্ ডিপার্টমেন্টে কাজ করেন বলে জানা গিয়েছে৷ নিহতের স্ত্রী, দুই মেয়ে এবং দুই ছেলে বর্তমান৷

এই বিমান সংস্থা ঘাড়ে এখন ৮০০০ কোটি টাকা ঋণের বোঝা রয়েছে৷ গত মাসেই জেট এয়ারওয়েজ-এর প্রতিষ্ঠাতা নরেশ গোয়েল এবং তাঁর স্ত্রী অনিতা গোয়েলকে এই বিমান সংস্থা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় এবং তাদের এই বিমান সংস্থা কেনার ব্যাপারে নিলামে কোনও ভাবেই অংশ নিতে পারবে না৷

পড়ুন: টিউনিসিয়ায় ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনায় নিহত ১২

বর্তমানে এই আর্থিক বেহাল দশায় থাকা এই বিমান সংস্থাটি নতুন অর্থ ঢোকার জন্য অপেক্ষা করে আছেন৷ স্টেট ব্যাংকের নেতৃত্বাধীন দেশীয় ঋণদাতা সংস্থাগুলি নিয়ে গঠিত কনসর্টিয়াম হয়ে জেট এয়ারওয়েজ বিক্রির কাজ করছে এসবিআই ক্যাপিটাল মার্কেটস৷

ফাইল ছবি

এদিকে, অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রী সুরেশ প্রভুকে চিঠি দিয়ে জেট ওয়ারওয়েজকে এয়ার ইন্ডিয়ার সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়ার সুপারিশ জানান রাজ্যসভার সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী৷ তাঁর বক্তব্য, অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রকের মন্ত্রিসভায় দৃঢ়ভাবে সুপারিশ করা উচিত যাতে শুধুমাত্র বিমান পরিষেবা নিয়ন্ত্রণের জন্য জেট এয়ারওয়েজকে এয়ার ইন্ডিয়ার সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়৷ এয়ার ইন্ডিয়া তাঁর পুরনো গৌরব ফিরে পায় তার জন্যেও জোর দেন তিনি৷