Google থেকে প্রাপ্ত পুরনো ছবি

ইসলমাবাদ: একদিকে জইশ জঙ্গিদের ব্যাপক ধরপাকড় শুরু করেছে পাকিস্তানের ইমরান সরকার। মাসুদ আজহারের ছেলে ও ভাইকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদিকে, হাফিজ সইদের সংগঠন জামাত-উদ-দাওয়াকেও নিষিদ্ধ করেছে পাক সরকার। এর মধ্যেই এক বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশারফ।

পাকিস্তানের ‘হাম টিভি’-র এক সাংবাদিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি ইমরান খানের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন। সেখানেই তিনি বলেন, পুলওয়ামায় জইশ জঙ্গিদের বিস্ফোরণের পিছনে আসলে হাত ছিল আইএসআইয়ের।

পাকিস্তান সন্ত্রাস দমনের যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে সেই সম্পর্কে মোশারফ বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই পাকিস্তান জঙ্গি কার্যকলাপে বিপর্যস্ত হয়ে ছিল। তাই এটাই সঠিক সময়।২০০৩ সালে তাঁকে হত্যার যে পরিকল্পনা হয়েছিল, সেকথা উল্লেখ করে মোশারফ বলেন, ঝান্ডা চিচি ব্রিজে সেই হামলা চালাতে গিয়েছিল এই জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিরাই। তাই জইশ সবসময়ই তাঁর কাছে একটি জঙ্গি সংগঠন।

এদিকে, পাক সেনার মুখপাত্র জেনারেল আসিফ গফুর দাবি করেছেন, জইশ-ই-মহম্মদ নাকি পাকিস্তানে নেই৷ অন্যদিকে আবার পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি কিছুদিন আগেই স্বীকার করেছেন মৌলানা মাসুদ আজহার – জইশ প্রধান পাকিস্তানের আছে৷ কিন্তু অসুস্থ৷ এতটাই অসুস্থ যে তিনি চলাফেরা করতে পারেন না৷

সূত্রের খবর, নাকি হাফিজ সইদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ইমরান খানের সরকার। জানা যাচ্ছে, মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড হাফিজ সইদের সংগঠন জামাত-উদ-দাওয়া ও শাখা সংগঠন ফালাহ-এ-ইনসানিয়াতের কিছু সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বেশ কিছু জইশ জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয় পাকিস্তানে। যার মধ্যে মাসুদ আজহারের ভাই এবং ছেলেও রয়েছে। এরপরই জামাত-উদ-দাওয়ার উপর কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার খবর আসে। সংগঠনের অন্তত দুটি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে দাবি পাক সংবাদপত্র ‘ডন’-এর।