বিশেষ প্রতিবেদনঃ  একদা অমিতাভ বচ্চন পরিবারের খুবই ঘনিষ্ঠ ছিলেন সদ্য প্রয়াত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব অমর সিং। কিন্তু বচ্চন পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির পর অমর সিং এক সাক্ষাৎকারে যা বলেছিলেন তা সংবাদমাধ্যমে বোমা ফাটানোর মতোই ঘটনা ঘটেছিল।

কয়েক বছর আগে সমাজবাদী পার্টিতে অমর সিং এর ভূমিকা নিয়ে আঙ্গুল উঠেছিল ‌। নতুন ওই দলের গৃহযুদ্ধের জন্য তাকে অনেকে শকুনির সঙ্গে তুলনা করেছিল। সেই সময় দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দলে তার নিজের ভূমিকা সম্পর্কে সাফাই গাইতে গিয়ে বিগ বি এবং জয়ার সম্পর্ক প্রসঙ্গে তার মন্তব্যে উত্তাল হয়েছিল গোটা বলিউড।

সেদিনের সেই সাক্ষাৎকারে অমর সিং এর বক্তব্য ছিল, দেশেজুড়ে না না বিভেদের জন্য লোকে তাকেই দায়ী করে । তিনি উল্লেখ করেন,আম্বানিদের পরিবারে ভাঙ্গনের জন্য লোকে তার দিকে আঙ্গুল তোলে। যদিও সেক্ষেত্রে তার কোনো ভূমিকা ছিল না বলেই দাবি করেছিলেন।

এইসব কথা বলতে গিয়ে তিনি জানিয়েছিলেন, লোকে বচ্চন পরিবারের ক্ষেত্রেও তার দিকে আঙ্গুল তুলেছে অথচ এই পরিবারের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা হওয়ার অনেক আগে থেকেই অমিতাভ বচ্চন এবং জয়া বচ্চন আলাদা আলাদা থাকেন। একজন থাকেন ‘প্রতীক্ষা’য় এবং অন্যজন ‘জনক’ নামক বাংলা।

তাছাড়া পুত্রবধূ ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের সঙ্গে জয়ার সম্পর্ক খুব খারাপ সেটার জন্য নাকি অমর সিং এর দিকে আঙ্গুল তোলা হয় অথচ এ ব্যাপারে তার কোনো ভূমিকা নেই বলেই ওই সাক্ষাৎকারে দাবি করেছিলেন অমর সিং। বচ্চন পরিবারের অন্দরের কলহ নিয়ে একদা পারিবারিক বন্ধু অমর সিং এর বিস্ফোরক মন্তব্যের খবর সেই সময় ভাইরাল হয়েছিল।

কিন্তু ওই সময় বচ্চন পরিবারের পক্ষ থেকে এহেন মন্তব্যের পাল্টা কোন প্রতিক্রিয়া না দিয়ে বরং নীরব থাকতে দেখা যায় । অবশ্য তার আগেও ঘরে বাইরে নানা সম্পর্ক নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধলেও পাল্টা যুক্তিতর্কের পথে না গিয়ে নীরব থাকতেই দেখা যেত বচ্চনদের। এক্ষেত্রেও তেমন ধারাই বজায় ছিল। তবে কয়েক মাস আগে এই বছরেই অসুস্থ অমর সিংকে বিগ বি-র কাছে ক্ষমা চাইতে দেখা গিয়েছিল।

এই বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে মুম্বই থেকে বহুদূরে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন ছিলেন অমর সিং । হাসপাতালের বেডে শুয়ে সিনিয়র বচ্চন এবং তার পরিবারের প্রতি নিজের অতীতের আচরণের জন্য ক্ষমা চাইতে দেখা যায় অমর সিং কে।

তখন তিনি জানিয়েছিলেন, মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন ও তার পরিবারের প্রতি ওভার রিয়েক্ট এর জন্য তিনি দুঃখিত। সেইদিন তিনি টুইট করেন এবং নিজের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করেন। ওই ভিডিওতে যেমন তিনি অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে দীর্ঘ বন্ধুত্বের কথা উল্লেখ করেন তেমনই জানিয়েছিলেন গত দশ বছর বচ্চন পরিবারের সঙ্গে তার কতটা দূরত্ব হয়েছে।

অমর সিং যখন তিহার জেলে তখন বিগ বি তার সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। আর সেটা থেকেই দুজনের সম্পর্কে চিড় ধরেছিল। সমাজবাদী প্রাক্তন নেতা অমর সিং এর সঙ্গে জয়া বচ্চনেরও সমস্যা হয়। এমনকি বচ্চন পরিবারের বধূ ঐশ্বর্য রায়ের অশালীন দৃশ্যে অভিনয় নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছিল একদা পারিবারিক বন্ধু অমর সিং কে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ