মুম্বই: চিকিৎসার জন্য জসপ্রীত বুমরাহকে লন্ডন পাঠাচ্ছে বোর্ড৷ সেখানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নেবেন টিম ইন্ডিয়ার এই স্পিডস্টার৷ লোয়ার ব্যাক স্ট্রেস ফ্র্যাকচারের জন্য চলতি দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন বুমরাহ৷ এরপর বাংলাদেশ সিরিজেও খেলার সম্ভাবনা নেই ভারতীয় দলের এই ডানহাতি পেসারের৷

সাড়ে তিন বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে এটাই সবচেয়ে বড় ইনজুরি ব্রেক বুমরাহের৷ বুধবার থেকে শুরু হওয়া দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন টেস্টের সিরিজে বুমরাহের পরিবর্তে উমেশ যাদবকে দলে নিয়েছেন নির্বাচকরা৷ সুত্রের খবর, চিকিৎসার জন্য বুমরাহকে লন্ডনে পাঠাচ্ছে বোর্ড৷ সেখানে তিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নেবেন টিম ইন্ডিয়ার নম্বর ওয়ান পেসার৷ সম্ভবত ৬ অথবা ৭ অক্টোবর লন্ডনের উদ্যেশে রওনা দেবে বুমরাহ৷

স্ট্রেস ফ্র্যাকচারের কারণে বুমরাহের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা অনিশ্চিত বুমরাহের৷ এমনটাই মনে করেন আশিস নেহেরা৷ টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন বাঁ-হাতি পেসার বলেন, ‘এক্ষেত্রে দু’রকম সমস্যা হতে পারে৷ মাস দু’য়েক পর জসপ্রীতের ভালো অনুভূতি হতে পারে৷ আবার মাস ছ’য়েক পর খারাপ অনুভূতিও হতে পারে৷ এই চোটের ক্ষেত্রে কোনও উপযুক্ত বিশ্রাম এবং তারপর রি-হ্যাবের প্রয়োজন হয় না৷ কেবলমাত্র খেলোয়াড় বুঝতে পারে, সে ম্যাচ ফিট কিনা৷’

এর ফলে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে আসন্ন ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পাশপাশি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজেও বুমরাহের খেলার সম্ভাবনা কম৷ গত দু’ বছর ধরে টিম ইন্ডিয়ার পেস আক্রমণের অন্যতম সদস্য হলেন গুজরাতের এই ডানহাতি পেসার৷ এখনও পর্যন্ত দেশের হয়ে ১২টি টেস্টে ৬২টি উইকেটে ও ৫৮টি ওয়ান ডে-তে ১০৩টি উইকেট এবং ৪২টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচে ৫১টি উইকেট নিয়েছেন বুমরাহ৷

গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট অভিষেক হয় বুমরাহের৷ অভিষেকেই নজর কেড়ে বিরাটের দলে নিয়মিত সদস্য হয়ে ওঠেন বছর পঁচিশের এই পেসার৷ আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বসছে টি-২০ বিশ্বকাপের আসর৷ তাই দ্রুত ফিট হয়ে জাতীয় দলে ফিরতে চান আমদাবাদের এই বোলার৷