মুম্বই: সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত দক্ষীণি পরিচালক প্রশান্ত মামবুল্লির ‘শ্রীদেবী বাংলো’র ট্রেলার নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে৷ ক্রমশ বিতর্কে জড়িয়ে পড়ছে ছবিটি৷ বিখ্যাত অভিনেত্রী। গ্ল্যামারে ভরপুর জীবন। নাম শ্রীদেবী। শেষটা মর্মান্তিক। বাথটবের জলে ডুবে মৃত্যু৷

গল্পটা পরিচিত। ঠিক এভাবেই মৃত্যু হয়েছে বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীদেবীর। মৃত্যু নিয়ে নানা রহস্য দানা বাঁধলেও পরিবারের তরফে শ্রীদেবীর মৃত্যুকে স্বাভাবিক বলেই উল্লেখ করা হয়। এবার পর্দায় সেই মৃত্যুরহস্য ফের উস্কে দেওয়ায় তৈরি হয়েছে কন্ট্রোভার্সি।

ইতিমধ্যেই ছবির পরিচালককে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন শ্রীদেবীর স্বামী তথা প্রযোজক বনি কাপুর। তাঁর দাবি তাঁর স্ত্রীয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু নিয়ে ছবি করার সাহস কারও হয় কীকরে৷ যদিও অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন পরিচালক। তাঁর যুক্তি শ্রীদেবী যে কোনও মহিলারই নাম হতে পারে। কিন্তু পরিণতিটাও একই কীভাবে হয়, উঠছে সেই প্রশ্ন।

বনি কাপুরের প্রতিক্রিয়ার পর সামনে জাহ্নবী কাপুরের রিঅ্যাকশন৷ জাহ্নবীর রিঅ্যাকশনে অবাক হচ্ছে নেটদুনিয়া৷ সম্প্রতি একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে তাঁকে ছবিটি নিয়ে প্রশ্ন করা হয়৷ উত্তর দেওয়ার আগেই নায়িকার পিআর টিম ধমক দিয়ে ওঠে মিডিয়াকে৷

জাহ্নবীর মুখ চোখে সঙ্গে সঙ্গে ভয় ফুটে ওঠে৷ নেটিজেনের মতে, “জাহ্নবী ‘শ্রীদেবী বাংলো’ নিয়ে কথা বলতে চাইছিল, তার আগেই ওকে থামিয়ে দেওয়া হল৷ নিশ্চই এর পেছনে কোনও রহস্য আছে৷”

ছবির ট্রেলারও সদ্য মুক্তি পেতেই ভিউজ ছাড়িয়েছে লাখ খানেক। নাম ভূমিকায় রয়েছেন প্রিয়া প্রকাশ ভ্যারিয়ার। কিছুদিন আগেই একটি ছবিতে তাঁর চোখ মারার দৃশ্য ভাইরাল হয়। যার পর থেকে টিন সেনসেশন হয়ে উঠেছেন তিনি৷

‘শ্রীদেবী বাংলো’তে দেখা যাচ্ছে প্রিয়ার চরিত্রের নাম শ্রীদেবী। তিনিও পেশায় অভিনেত্রী। ট্রেলারের শেষে দেখা যাচ্ছে বাথটাবে ডুবে মারা যাচ্ছেন তিনি। এতগুলি বিষয় মিলে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে ছবির গল্প নিয়ে।

এবার এই বিতর্ক নিয়ে মুখ খুললেন ছবির নায়িকা৷ প্রিয়ার কথায়, “ছবিটিতে আমার চরিত্রের নাম শুধু শ্রীদেবী৷ একটা ফিল্ম নিয়ে এতো বিতর্ক কে তৈরি করতে চাইবে? আমার মনে হয় ট্রেলার নিয়ে দর্শকের মনে কৌতূহল থাকা প্রয়োজন৷ তারাই বিচার করুক ছবিটা আদৌ প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবীর উপর ভিত্তি করে বানানো কিনা৷”