শ্রীনগরঃ  বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান হাই-ভোল্টেজ ম্যাচ। টানটান উত্তেজনায় ওল্ড ট্র্যাফোডে। ভারত-পাকিস্তান দুই শিবিরেই উত্তেজনার পারদ। এরই মধ্যে অশান্ত দুদেশের সীমান্ত। খেলা চলাকালীনই ভারতীয় সেনা ছাউনি টার্গেট করে হেভি শেলিং শুরু করল পাকিস্তান। জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে লাগাতার শেলিং শুরু করেছে পাকিস্তান সেনা। যদিও ভারতের তরফেও পালটা জবাব দেওয়া হচ্ছে। একেবারে খোল হাতে পাকিস্তানকে জবাব দিচ্ছে ইন্ডিয়ান ফোর্স। অন্ধকারে নতুন করে গুলির লড়াইয়ে উত্তপ্ত ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত।

গত কয়েকদিন ধরে কার্যত চুপচাপই ছিল ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত। আজ রবিবার বিশ্বকাপে মুখোমুখি হয় ভারত এবং পাকিস্তান। ম্যাচ ঘিরে স্বভাবতই উত্তেজনার পারদ চড়েছে। কারণ গোটা দেশই এই হাই-ভোল্টেজ ম্যাচের দিকে নজর রেখেছে। আর সেই সুযোগে ভারতীয় সেনা ছাউনি টার্গেট করে হেভি শেলিং পাকিস্তান সেনার। একেবারে বিনা প্ররোচনায় সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন পাকসেনার। পালটা জবাব ভারতীয় সেনার তরফে।

জানা যাচ্ছে, রাতে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ চলাকালীন সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করে ভারতীয় সেনা পোস্ট এবং গ্রামাঞ্চল লক্ষ্য করে ফের মর্টার হামলা শুরু করে পাকিস্তান। তৎক্ষণাৎ পাকিস্তানকে যোগ্য প্রত্যুত্তর দেয় ভারতীয় সেনাবাহিনীও। এমনগাই দাবি ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রকের। জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার কৃষ্ণঘাঁটি এবং রাজৌরির নওসেরা এলাকায় এই হামলা ঘটেছে। নতুন করে পাকিস্তানের এই মর্টার শেলিংয়ে সীমান্তে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। দ্রুত স্থানীয় মানুষজনকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

জানা যাচ্ছে, সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন হওয়ার সঙ্গে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে হাই-অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।