শ্রীনগর: জঙ্গিদের গুলি প্রাণ কাড়ল নিরিহ কাশ্মীরির৷ সোমবার ঘটনাটি ঘটে জম্মু কাশ্মীরের কুপওয়ারা জেলায়৷

জানা গিয়েছে, কুপওয়ারা হান্দওয়ারাতে হঠাৎ জঙ্গিরা এলোপাথারি গুলি ছুঁড়তে শুরু করে৷ একটি গুলি এক ব্যক্তির শরীরে গিয়ে বিঁধে৷ গুরুতর আহত হয় সে৷ সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ পরে অবশ্য চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে৷

মৃত কাশ্মীরির নাম আবদুল মাজিদ শাহ৷ কুপওয়ারার বাবাগুন্ড এলাকার বাসিন্দা৷ ঘটনার পরই সেখানে ছুটে যায় নিরাপত্তা বাহিনী৷ পুরো এলাকা তারা ঘিরে ফেলে৷ জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি চলে৷ অন্যদিকে পুলিশও একটি খুনের মামলা দায়ের করেছে৷

অপরদিকে এদিনই কাশ্মীরে বড়সড় নাশকতার ছক বানচাল করল ভারতীয় সেনা৷ জম্মু কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় নিষ্ক্রিয় করা হল শক্তিশালি আইইডি৷ রাজৌরির জাতীয় সড়কের কাছে কাল্লার চকে এই ঘটনা ঘটে৷ আইইডি বিস্ফোরণ হলে বহু মানুষের ক্ষয়ক্ষতির আশংকা ছিল বলে জানাচ্ছে সেনা৷

সোমবার সেনার রোড ওপেনিং পার্টি জাতীয় সড়ক ১৪৪এতে টহলদারি দিচ্ছিল৷ সেখানেই রাজৌরি ও পুঞ্চ জেলার মাঝের সংযোগকারী রাস্তায় এই আইইডি উদ্ধার হয়৷ পেট্রলিং চলাকালীন রাস্তার মাঝে সন্দেহ জনক বস্তু পড়ে থাকতে দেখেন সেনা আধিকারিকরা৷ পরীক্ষা করে আইইডি উদ্ধার করেন তাঁরা৷ দ্রুত সেটি নিষ্ক্রিয় করা হয়৷ দেখা যায় একটি বোতলে কিছুটা তরল পদার্থ রয়েছে আর একটি প্লাস্টিকের ব্যাগে ছিল বেশ কিছু কঠিন বস্তু৷ সেসব পরীক্ষা করেই আইইডির হদিশ পান সেনা জওয়ানরা৷

সঙ্গে সঙ্গে নিকটবর্তী পুলিশ চৌকি ও সেনা ক্যাম্পে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়৷ স্থানীয় চিঙ্গুস ছাতয়ার পুলিশ স্টেশন থেকে পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে আসে৷ উপস্থিত হন এসআই এম ডি খান৷ সঙ্গে সঙ্গে যানবাহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়৷ পরে বম স্কোয়াড এলাকায় পৌঁছে আইইডি নিষ্ক্রিয় করে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।