নয়াদিল্লি: সোমবার রাজ্যসভায় ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর্টিকেল ৩৭০ ও ৩৫এ প্রত্যাহারের পর জম্মু কাশ্মীর বিধানসভা সহ ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, অন্যদিকে লাদাখ হবে বিধানসভাবিহীন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল। এই সিদ্ধান্তের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে দোষারোপের পালা। যেখানে ভারতীয়রা এই সিদ্ধান্তকে বিশেষ জয় হিসেবে দেখছে তেমনি পাক নাগরিক উগ্রে দিচ্ছে হতাশা। সেই ছবি উঠে এল সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ট্যুইটারে।

পাকিস্তানের তেহরিক-এ-ইসলাম তাঁদের নিজস্ব ট্যুইটার হ্যাণ্ডেলে একটি ছবি শেয়ার করে, যেখানে পিটিআই নেতা ও পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গাছের চারা রোপণ করছেন। যা তাঁদের দলের উদ্যোগ ‘টেন বিলিয়ন ট্রি সুনামি’র একটি অংশ। সেই ট্যুইটে লেখা, “লক্ষ্য উঁচু, সময় কম তবে পাকিস্তানিদের ইচ্ছে শিখরচুম্বী। আপনারা কি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এই অভিযানের অংশ হবেন, ভবিষ্যতে পরিষ্কার ও সবুজ পাকিস্তানের আশায়?”

পাকিস্তানের নাগরিকদের একাংশ যেমন ভারতের তরফে এই সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা করছে অন্যদিকে একাংশের মিশ্র প্রতিক্রিয়া মিলেছে এই বিষয়ে। এই সিদ্ধান্তকে পরোক্ষভাবে কটাক্ষ করে এই বিষয়ে পাকিস্তান সরকারের নিস্ক্রিয়তার কথাও তুলে ধরেছেন।